Alexa গৃহবধূকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ, প্রাণ গেল প্রতিবন্ধী যুবকের

ঢাকা, শুক্রবার   ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯,   অগ্রহায়ণ ২৮ ১৪২৬,   ১৫ রবিউস সানি ১৪৪১

গৃহবধূকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ, প্রাণ গেল প্রতিবন্ধী যুবকের

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১২:৫৯ ১৫ নভেম্বর ২০১৯  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গৃহবধূকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় এক বাকপ্রতিবন্ধী যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে দৃর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুইজনকে আটক করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে জেলা সদরের বাসুদেব ইউপির বৈষ্ণবপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত শফিকুল ইসলাম ওই গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে। 
আহতরা হলেন- সিরাজ মিয়া, আহাম্মদ আলী, আশেক মিয়া, বাদশা মিয়া, ইসমাইল মিয়া, রুবেল মিয়া, তাজুল ইসলাম, আহাদ মিয়া, শাবলু মিয়া, মুসা মিয়া। তাদের ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতাল ও আখাউড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়রদের বরাত দিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ওসি মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন জানান, দীর্ঘদিন ধরে জমি নিয়ে বৈষ্ণবপুর গ্রামের আবুল খায়েরের সঙ্গে একই গ্রামের জামাল মিয়ার মধ্যে বিরোধ চলছিল। কিছুদিন আগে স্থানীয়ভাবে সালিশ করে বিরোধটি নিষ্পত্তি হয়। তবে জামাল মিয়ার লোক ইমাম হোসেন বৃহস্পতিবার রাতে আবুল খায়েরের লোক রুবেল মিয়ার বাড়িতে যায়। এক পর্যায়ে সুযোগ বুঝে রুবেলের স্ত্রীকে ঝাপটে ধরার চেষ্টা করে ইমাম হোসেন। এ সময় বাকপ্রতিবন্ধী শফিকুল ইসলাম এ ঘটনার প্রতিবাদ করে। পরে রুবেল বাড়িতে এসে ইমাম হোসেনকে আটক করে। রুবেল রাতেই বিষয়টি এলাকার কয়েকজনকে অবহিত করে।

তিনি আরো জানান, এক পর্যায়ে ইমাম হোসেন পালিয়ে যায়। তার মারধর করার দাবি করে জামাল মিয়ার লোক নিয়ে বাকপ্রতিবন্ধী সফিকুল ইসলামকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। এতে আশঙ্কাজনক অবস্থায় আহতকে উদ্ধার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে। তবে ওই সময় উভয়পক্ষের সংঘর্ষে ১০ জন আহত হন।

ওসি আরো জানান, মরদেহ উদ্ধার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। নারী সংক্রান্ত ঘটনার জেরে হত্যাকাণ্ড হয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুইজনকে আটক করা করেছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ