.ঢাকা, শুক্রবার   ২২ মার্চ ২০১৯,   চৈত্র ৮ ১৪২৫,   ১৫ রজব ১৪৪০

গার্মেন্ট এক্সেসরিজ ও প্যাকেজিং মেলা ১৭ জানুয়ারি

নিজস্ব প্রতিবেদক

 প্রকাশিত: ১৬:০৪ ১৩ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ২০:০১ ১৪ জানুয়ারি ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

দেশের শীর্ষ রফতানিমুখী খাত তৈরি পোশাক শিল্পে ব্যবহৃত বিভিন্ন সরঞ্জামের সমাহারে ‘গার্মেন্ট এক্সেসরিজ ও প্যাকেজিং এক্সপজিশন (গ্যাপেক্সপো)-২০১৯’ মেলা শুরু হচ্ছে আগামী ১৭ জানুয়ারি থেকে। যা চলবে ২০ জানুয়ারি পর্যন্ত।

এ উপলক্ষে আগামী বৃহস্পতিবার রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) চার দিনব্যাপী দশমবারের এই মেলা উদ্বোধন করবেন শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন।

বাংলাদেশ গার্মেন্টস এক্সেসরিজ অ্যান্ড প্যাকেজিং ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিজিএপিএমইএ), এএসকে ট্রেড অ্যান্ড এক্সিবিশন প্রা. লিমিটেড এবং জাকারিয়া ট্রেড অ্যান্ড ফেয়ার ইন্টারন্যাশনাল যৌথভাবে এই মেলার আয়োজন করছে।

সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এসব তথ্য জানিয়েছে আয়োজক প্রতিষ্ঠানসমূহ।  

এতে জানানো হয়, গার্মেন্টস এক্সেসরিজ ও প্যাকেজিংয়ের বিভিন্ন ধরনের পণ্য-সামগ্রি পোশাক প্রস্তুতকারকদের কাছে তুলে ধরতে এ মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রতিদিন বেলা ১১টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত মেলাপ্রাঙ্গণ খোলা থাকবে, যা থাকবে সবার জন্যই উন্মুক্ত। মেলায় ২০টি দেশের ৫১০টি প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করবে। বাংলাদেশসহ অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে- রাশিয়া, ভারত, শ্রীলঙ্কা, থাইল্যান্ড, ইতালি, মালায়েশিয়া, হংকং, ইন্দোনিশেয়া, সিঙ্গাপুর, জার্মানি, ফ্রান্স, জাপান, তাইওয়ান, সুইডেন, কানাডা, ফিনল্যান্ড, সুইজারল্যান্ড  ও ইতালি।

এছাড়াও প্রদর্শনীতে সরাসরি সর্বোচ্চ রফতানিকারকদের থেকে তিনজনকে এবং প্রচ্ছন্ন রফতানিকারকদের মধ্য থেকে তিন ক্যাটাগরিতে মোট ৯ জনকে পুরস্কৃত করা হবে। আর নারী উদ্যোক্তাদেরও উৎসাহিত করতে তিনজনকে পুরস্কৃত করা হবে বলে জানা গেছে।

মেলায় গার্মেন্টস ও গ্যাপেক্সপো প্রদর্শনীতে পোশাক খাতের সরঞ্জাম ও মোড়কীকরণ সামগ্রী তৈরির যন্ত্র, সেলাই মেশিন, এমব্রয়ডারি, ডাইং, প্রিন্টিং কাটিং, ক্যাড-ক্যাম, স্প্রেডিং যন্ত্র প্রদর্শন করবে প্রতিষ্ঠানগুলো।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিজিএপিএমইএ’র সভাপতি আব্দুল কাদের খান বলেন, এবারের মেলায় পণ্যের পাশাপাশি আধুনিক মেশিন ও যন্ত্রপাতি প্রদর্শন করা হবে। এর মাধ্যমে গার্মেন্টস খাতের ব্যবসায়ীরা সর্বশেষ প্রযুক্তি সম্পর্কে ধারণা নিতে পারবেন। এ প্রদর্শনীর মাধ্যমে পণ্য প্রস্তুতকারক ও ক্রেতাদের মধ্যে সেতুবন্ধন তৈরি হবে, যা এ শিল্পকে নতুন মাত্রা দেবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসএস/এসআইএস