Alexa গাজীপুর হানাদার মুক্ত দিবস আজ

ঢাকা, শনিবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২০,   মাঘ ৪ ১৪২৬,   ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

Akash

গাজীপুর হানাদার মুক্ত দিবস আজ

গাজীপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৪:৩৮ ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯   আপডেট: ০৯:৩৫ ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

আজ ১৫ ডিসেম্বর। গাজীপুর হানাদার মুক্ত দিবস। ১৯৭১ সালের এ দিনে গাজীপুরের ছয়দানা মালেকের বাড়ি এলাকায় হানাদার বাহিনীর সঙ্গে যুদ্ধ করে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীকে পরাজিত করে গাজীপুরকে হানাদার মুক্ত করা হয়।

মুক্তিযোদ্ধা কাজী মোজাম্মেল হকের নেতৃত্ব গাজীপুরকে হানাদার মুক্ত করা হয়। এদিন মহানগরের ছয়দানা এলাকায় পাকিস্থানি হানাদার বাহিনীর সঙ্গে মিত্র ও মুক্তিবাহিনীর বড় ধরনের সম্মুখ যুদ্ধ হয়। এতে পাকবাহিনীর ভারি অস্ত্র ও যানবাহন ধ্বংস এবং বহু সেনা নিহত হন।

দিবসটি উপলক্ষে জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড ও জেলা প্রসাশন নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

ঢাকার সন্নিকটে গাজীপুরে যুদ্ধের শেষ পর্যায়ে দখলদার পাক বাহিনীর ব্যাপক বিপর্যয় ও ক্ষয়ক্ষতি তাদের পতন ও আত্মসমর্পণকে ত্বরান্বিত করে। স্বাধীনতা যুদ্ধে গাজীপুরবাসীর রয়েছে এক গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকা।

১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ চূড়ান্ত মুক্তিযুদ্ধ শুরু হওয়ার পূর্বেই ১৯ মার্চ এই গাজীপুরের মাটিতে সর্বপ্রথম হয়েছিল পাকিস্তানি বাহিনীর বিরুদ্ধে সশস্ত্র প্রতিরোধ যুদ্ধ। সে সময় সারা দেশে স্লোগান উঠেছিল ‘জয়দেবপুরের পথ ধর, বাংলাদেশ স্বাধীন কর’। আবার বিজয় লাভের পূর্ব ক্ষণে ১৫ ডিসেম্বর এই গাজীপুরের মাটিতেই সংঘটিত হয়েছিল হানাদার পাক বাহিনীর বিরুদ্ধে মুক্তি ও মিত্র বাহিনীর সর্বশেষ বড় ধরনের সম্মুখ যুদ্ধ।

সেকশন কমান্ডার ও গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আলীম উদ্দিন বুদ্দিন বলেন, ঢাকার সন্নিকটে গাজীপুরে যুদ্ধের শেষ পর্যায়ে দখলদার পাক বাহিনীর ব্যাপক বিপর্যয় ও ক্ষয়ক্ষতিই তাদের পতন ও আত্মসমর্পণকে ত্বরান্বিত করে। 

মুক্তিযোদ্ধা হাতেম আলী জানান, ১৫ ডিসেম্বর সন্ধ্যা নাগাদ গাজীপুর শত্রুমুক্ত হয়। পরে রাতে মানুষ উল্লাস করে জেলা শহরে প্রবেশ করে। ছয়দানা যুদ্ধে মিত্রবাহিনীর চারজন শহীদ হন। 

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম/টিআরএইচ