Alexa ‘খেয়াল উৎসব’-এ ৪৫ শিল্পীর একক পরিবেশনা

ঢাকা, সোমবার   ২৬ আগস্ট ২০১৯,   ভাদ্র ১১ ১৪২৬,   ২৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

Akash

‘খেয়াল উৎসব’-এ ৪৫ শিল্পীর একক পরিবেশনা

বিনোদন প্রতিবেদক

 প্রকাশিত: ২১:২৪ ২৯ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ২১:৪৫ ২৯ জানুয়ারি ২০১৯

ছবি- সংগৃহীত

ছবি- সংগৃহীত

চ্যানেল ‘আই’ এর আয়োজনে ৫ম বারের মতো হতে যাচ্ছে ‘বাংলা খেয়াল উৎসব’। উচ্চাঙ্গ সংগীতের এ উৎসব শুরু হবে ৩১ জানুয়ারি বিকেল ৫টা ৩০ মিনিট থেকে। চলবে ১ ফেব্রুয়ারি সকাল ৮টা ৪৫ মিনিট পর্যন্ত। 

এবারো এ আয়োজনের পৃষ্ঠপোষকতা করছে ইস্পাহানি টি লিমিটেড। বাংলা ভাষায় খেয়ালকে জনপ্রিয় করার জন্যই এ উৎসবের আয়োজন।

এ উপলক্ষে চ্যানেল আই ভবনে মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন- বাংলা খেয়ালের উদ্যোক্তা, সংগীতজ্ঞ ও সংস্কৃতি কেন্দ্রের চেয়ারম্যান আজাদ রহমান, চ্যানেল আই-এর পরিচালক ও বার্তাপ্রধান শাইখ সিরাজ এবং ইস্পাহানি টি লি.-এর সিনিয়র ম্যানেজার মো. হারুন (সেলস্ অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশনস)।

এ উৎসব সম্পর্কে আজাদ রহমান বলেন, চ্যানেল আই শুদ্ধ সংগীতের প্রসারে বিশ্ব দরবারে যে অবদান রেখে চলেছে, তা সংগীত জগতে স্মরণীয় হয়ে থাকবে। এর পাশাপাশি উচ্চাঙ্গ সংগীতের প্রসারেও তাদের অবদান কম নয়। গত পাঁচ বছর ধরে তারা একটানা উচ্চাঙ্গ সংগীতের উৎসব আয়োজন করে আসছে। চ্যানেল আই আমাদের সংগীত জগত তথা সংগীতপ্রেমীদের পরম বদ্ধু। আগে খেয়াল শোনার ব্যাপারে মানুষ আগ্রহী হয়নি, কিন্তু এ খেয়াল উৎসবের ফলে খেয়ালের প্রতি মানুষের আগ্রহ বাড়ছে এবং বাংলা খেয়াল চর্চায় মানুষের মনোযোগ বাড়ছে।

এ সময়ে শাইখ সিরাজ বলেন, আমাদের দেশ সংগীতেও সমৃদ্ধ। আমরা শুদ্ধ সংগীত উপহার দেয়ার জন্য নানান রিয়েলিটি শো’র নিয়মিত আয়োজন করে আসছি। যা সংগীত ভান্ডারকে দেশে-বিদেশে ব্যাপকভাবে বিকশিত করছে। খেয়াল তথা উচ্চাঙ্গ সংগীত যে কোনো সংগীতের প্রাণ। এ উৎসবটির নিয়মিত আয়োজনের ফলে প্রতি বছরই প্রসারিত হচ্ছে উৎসবের পরিধি।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- ড. নাশিদ কামাল, ড. লীনা তাপসী খান, অনিল কুমার সাহা, করিম শাহাবুদ্দিন, ড. হারুনুর রশিদ, সেলিনা আজাদ-সহ উচ্চাঙ্গ সংগীতের প্রবীণ ও নবীন শিল্পীরা। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত শিল্পীরা পাঠ্য বইয়ে উচ্চাঙ্গ সংগীত বিষয় অন্তর্ভুক্ত করার দাবি করেন। 

বাংলা খেয়াল প্রযোজক অনন্যা রুমা বলেন, গত উৎসবে যারা গান করেছেন তারাই গাইবেন। থাকবে ৪৫ জন একক শিল্পীর পরিবেশনা, ২০০ শিশুর উপস্থিতিতে ‘বাংলা খেয়াল’ উৎসব ১০ দলে ১০০ জন শিল্পীর পরিবেশনা থাকবে পুরো উৎসবজুড়ে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমএম/এসআই

Best Electronics
Best Electronics