Alexa খেজুর রসে বিষ মিশিয়ে পাখি মারছে শিকারিরা

ঢাকা, বুধবার   ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০,   ফাল্গুন ৭ ১৪২৬,   ২৫ জমাদিউস সানি ১৪৪১

Akash

খেজুর রসে বিষ মিশিয়ে পাখি মারছে শিকারিরা

নাটোর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২২:২৩ ২০ জানুয়ারি ২০২০  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

নাটোরের সিংড়ার চলনবিলে খেজুরের রসে বিষ মিশিয়ে দেশীয় প্রজাতির পাখি নিধন করছে শিকারিরা। আর সেই পাখিগুলো কিনছেন অসাধু কিছু রেস্তোরাঁ ব্যবসায়ী।

সোমবার সকালে সিংড়ার চলনবিলের কৃষ্ণপুর আত্রাই নদীর বাঁধে প্রায় ২০টি খেজুর গাছের রসের হাঁড়িতে দানাদার বিষের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। বিষক্রিয়ায় মৃত পাখিগুলো গাছের নিচে ছিল। পরে স্থানীয় পরিবেশকর্মীরা পাখিগুলো উদ্ধার করেন। এছাড়া হাঁড়ি ও গাছ পানি দিয়ে ধুয়ে এলাকাবাসীকে সচেতন করেন।

চলনবিলের কলম ডিগ্রি কলেজের ভূগোল ও পরিবেশ বিদ্যা বিভাগের প্রভাষক হারুন-অর রশিদ জানান, বর্ষার শেষ ভাগে বিলে পানি কমতে শুরু করলে মাছ খাওয়ার লোভে ভিড় জমায় অতিথিসহ দেশীয় প্রজাতির পাখিরা। আবার শীতে খেজুর গাছের রসের হাঁড়িতে এসব পাখিদের আনাগোনা দেখা যায়। আর এ সুযোগেই কিছু লোভী শিকারি দানাদার বিষ, কারেন্ট জালসহ বিভিন্ন ফাঁদ পেতে পাখি শিকার করেন।

চলনবিল জীববৈচিত্র্য রক্ষা কমিটির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম বলেন, পাখি শিকার বন্ধে আইন থাকলেও চলনবিল এলাকায় কোনো প্রয়োগ নেই। বিলের পাখি শিকার বন্ধে সবার সমন্বিত পরিকল্পনা ও প্রতিটি আইনশৃঙ্খলা সভায় বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে উপস্থাপন প্রয়োজন।

উপজেলা বন কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান বলেন, বৃহৎ এলাকা হওয়ায় চলনিবেলে পাখি শিকার বন্ধ হচ্ছে না। তবে এ বিষয়ে চলনবিলের বিভিন্ন এলাকায় সচেতনতা সভা করছে বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন ইউনিট এবং রাজশাহী বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর