খুলনায় অভিমান করে দুজনের আত্মহত্যা  

ঢাকা, সোমবার   ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০,   আশ্বিন ১৩ ১৪২৭,   ১০ সফর ১৪৪২

খুলনায় অভিমান করে দুজনের আত্মহত্যা  

খুলনা প্রতিনিধি     ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:৩০ ৫ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ২০:৩৬ ৫ আগস্ট ২০২০

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

খুলনায় স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে স্ত্রী তমা ও মা-বাবার সঙ্গে কলেজ ছাত্রী পলি সরদার ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

মহানগরীর বয়রা ক্রস রোড (আল ফারুক মোড়) এলাকায় ভাড়ার বাসায় তমা আত্মহত্যা করেন। ৬ তলা আবাসিক ভবনে স্বামী বেসরকারি ব্যাংক কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম ও মেয়ে নিয়ে থাকতেন তমা।

বুধবার বেলা ৩টার দিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসলে চিকিৎসক তমাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সোনাডাঙ্গা মডেল থানার  ওসি মো. মমতাজুল হক বলেন, ব্যাংক কর্মকর্তা সকালে অফিসে যাওয়ার পর তার প্রথম শ্রেণিতে পড়া মেয়ে আর স্ত্রী বাসায় ছিলেন। দুপুর ২টার দিকে মেয়েটি দেখে তার মা পাশের রুমে ঝুলে আছে। সে তখন পাশের প্রতিবেশীকে জানালে তারা স্বামীকে জানায়। পরে তাকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসলে  চিকিৎসক  মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় অপমৃত্যু মামলার প্রস্তুতি চলছে। মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা আছে। বৃহস্পতিবার ময়না তদন্ত করা হবে।

স্বামী মো. রফিকুল ইসলাম জানান, সকালে সামান্য বিষয় নিয়ে কিছুটা কথা কাটাকাটি হয় তাদের মধ্যে।  তারপর তিনি ব্যাংকে চলে গেলে এ ঘটনা ঘটে।

এ ছাড়া ডুমুরিয়ায় বাবা-মার ওপর অভিমান করে পলি সরদার নামের এক কলেজ ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। থানা পুলিশ বুধবার সকালে উপজেলার শোভনা ইউপির জিয়ালতলা গ্রামে নিজের কক্ষ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে।

স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার শোভনা ইউপির জিয়ালতলা গ্রামের দিপক সরদারের মেয়ে পলি সরদার নিজের পোষাক কেনাকাটার জন্য টাকা চেয়ে বাবার সঙ্গে ঝগড়া করে। মঙ্গলবার রাতে এ ঝগড়ার পরে পলি রাত সোয়া ১১টার দিকে নিজের ঘরে ঘুমাতে যায়। বুধবার সকালে তার উঠতে দেরি দেখে ডাকাডাকির এক পর্যায়ে দরজা খুলে দেখা যায় তিনি ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ঝুলে আছেন।

ডুমুরিয়া থানার এস আই ইলিয়াজ হোসেন জানান, খবর পেয়ে পুলিশ পলির  ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে। সুরতহাল রিপোর্ট শেষে ময়না তদন্তের জন্য মরদেহ মর্গে প্রেরণ করা হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমএইচ