Alexa খালেদার কাছেই গুমের হিসেব চান এইচ টি ইমাম

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২২ আগস্ট ২০১৯,   ভাদ্র ৮ ১৪২৬,   ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

Akash

খালেদার কাছেই গুমের হিসেব চান এইচ টি ইমাম

 প্রকাশিত: ২০:৫৮ ২১ ডিসেম্বর ২০১৭  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকেই তার দাবি মতে গুম হয়ে যাওয়া সাড়ে সাতশো মানুষের হিসেব দিতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম।

বৃহস্পতিবার খালেদা জিয়া এক টুইট বার্তায় দাবি করেন যে, গত দশ বছরে বাংলাদেশে সরকারি বাহিনীর হাতে সাড়ে সাতশো মানুষ গুম হয়েছেন।

এর মধ্যে ২০১৩ সালের ডিসেম্বরেই ১৯ জন বিএনপি কর্মীকে গুম করা হয় বলে দাবি করেন তিনি। ইংরেজি এবং বাংলায় একই বিষয়ে দুটি টুইট করেন তিনি।

‘২০১৩-র কাল ডিসেম্বরে ১৯জন বিএনপি কর্মীকে গুম করা হয়েছিল, আজো তারা ফেরেননি। গত ১০ বছরে কমপক্ষে প্রায় ৭৫০জন গণতন্ত্রকামী কর্মীকে গুম করেছে সরকারি বাহিনী। গুমের শিকার মানুষের সন্তান, পিতা-মাতা, স্ত্রীর কান্নার রোল থামছে না। এর অবসান চাই।’

খালেদা জিয়া এমন এক সময়ে টুইটারে এ বার্তা দিলেন যখন বাংলাদেশে নিখোঁজ হয়ে যাওয়া ব্যক্তিদের তালিকা দীর্ঘতর হচ্ছে। সাবেক একজন রাষ্ট্রদূত মারুফ জামান এবং নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক মোবাশ্বার হাসান এখনো নিখোঁজ।

কিন্তু খালেদা জিয়ার টুইটের জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম বলেন, খালেদা জিয়া গুমের যে পরিসংখ্যান তুলে ধরছেন, সেটা তাকে প্রমাণ করতে হবে।

এইচ টি ইমাম বলেন, তার কাছে আমরা প্রত্যেকটি ঘটনার নাম ,বর্ণনা, কোথায় কী হয়েছিল, কোন সরকারি সংস্থা জড়িত .. আমরা এটা দাবি করবো। এটা যদি না বলতে পারেন, তাহলে আমরা বলবো তিনি মিথ্যা-ভ্রান্ত তথ্য ছড়াচ্ছেন এবং জনমনে আশঙ্কা তৈরি করছেন।

তবে খালেদা জিয়ার টুইট বার্তার ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলছেন, খালেদা জিয়া ৭৫০জন গুম হওয়ার যে পরিসংখ্যান তুলে ধরেছেন সেটি তার কাছে কমই মনে হয়।

কিন্তু এ পরিসংখ্যান সম্পর্কে বিএনপি কিভাবে নিশ্চিত হলো?

এমন প্রশ্নে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, পরিসংখ্যানের ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়ার বিষয়টা আমাদের কাছে বড় না। আমরা গত বছর একটা হিসেব নিয়েছিলাম। তাতে আমাদের দলেরই ২৫৯ জনের বেশি গুম হয়ে গেছে। যে হিসেবগুলো আমরা পত্র-পত্রিকায় দেখতে পাই তাতে সাড়ে সাতশ আমার কাছে কমই মনে হয়।

তিনি আরো বলেন, এসব ঘটনার পেছনে যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সম্পৃক্ততা আছে তাতে কোন সন্দেহ নেই।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআরকে

Best Electronics
Best Electronics