Alexa ক্যান্সার থেকে ফিরে ইংলিশ চ্যানেল জয়ে বিশ্ব রেকর্ড

ঢাকা, শনিবার   ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯,   অগ্রহায়ণ ২২ ১৪২৬,   ০৯ রবিউস সানি ১৪৪১

ক্যান্সার থেকে ফিরে ইংলিশ চ্যানেল জয়ে বিশ্ব রেকর্ড

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৩:৩৫ ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আপডেট: ০৩:৪০ ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ছবি- সংগৃহীত

ছবি- সংগৃহীত

মরণব্যাধি ক্যান্সার থেকে বেঁচে যাওয়া যুক্তরাষ্ট্রের এক নারী এই প্রথম টানা চারবার ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি দেয়ার বিশ্ব রেকর্ড গড়েছেন।  ৩৭ বছর বয়সী এই নারী সাঁতারুর নাম সারাহ টমাস।

মাত্র এক বছর আগে ম্যারাথন সাতারু স্তন্য ক্যান্সারের চিকিৎসার মধ্য দিয়ে গেছেন। ক্যান্সারে জীবনের শেষ প্রান্তে পৌঁছে গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু দীর্ঘ মেয়াদী চিকিৎসার পর সেখান থেকে ফিরে এসেছেন মনের অদম্য শক্তির জোরে।

গত ১৫ সেপ্টেম্বর রোববার খরস্রোতা ইংলিশ চ্যানেলে দুঃসাহসিক অভিযান শুরু করেন তিনি। যাত্রা শুরুর পর দীর্ঘ ৫৪ ঘণ্টা সময় নিয়ে ১৭ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার নির্ধারিত মার্ক পয়েন্টে পৌঁছে যাত্রা শেষ করেন তিনি। আর এর মধ্যদিয়ে টানা চারবার ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি দেয়ার এ অনন্য বিশ্ব রেকর্ড গড়েন। নিজের অনন্য এই অর্জনকে সারাহ সব ক্যান্সারজয়ী ব্যক্তিদের প্রতি উৎসর্গ করেছেন।

রেকর্ড গড়ার পর বিবিসি নিউজকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, সত্যিকার অর্থে এটি আমার বিশ্বাস হচ্ছে না। আমি কেবল শুরু করতে চেয়েছি; যাত্রা শুরুর পর সমুদ্রতীরের অনেকেই আমাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। যদিও এতে আমি নিজেই বিস্মিত।

সারাহ টমাস আরো বলেন, সাঁতারের সবচেয়ে কঠিন দিকটি ছিল লবণাক্ত পানি, এটি বারবার আমার গলা ও মুখে ঢুকে পড়ছিল। যেখানে প্রতিটি পথ পাড়ি দেয়াই ছিল বেশ কঠিন। সর্বশেষ আমি যখন ফ্রান্স থেকে এখানে আসি তখনকার পরিস্থিতি সত্যিই বেশ কঠিন ছিল; যা ভাষায় প্রকাশ করা যাবে না।

এর আগে মাত্র চারজন সাঁতারু টানা তিনবার না থেমে ইংলিশ চ্যানেল পাড়ির রেকর্ড গড়েছেন। সারাহের পূর্বে আর কেউ চারবার এই চ্যালেঞ্জটি সম্পন্ন করেননি। 

২০০৭ সালে ইংলিশ চ্যানেলের বুকে নিজের প্রথম ওপেন-ওয়াটার ইভেন্ট সম্পন্ন করেন তিনি। এরপর ২০১২ সালে দ্বিতীয় এবং ২০১৬ সালে তৃতীয়বারের মতো এই খরস্রোতা ওয়াটার চ্যানেল পাড়ি দিয়েছিলেন এই মার্কিন নারী।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএইচ