ক্যাট ফিল্টার অন রেখেই ফেসবুক লাইভে পাকিস্তানী রাজনীতিবিদ
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=112172 LIMIT 1

ঢাকা, শুক্রবার   ১৪ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ৩০ ১৪২৭,   ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

ক্যাট ফিল্টার অন রেখেই ফেসবুক লাইভে পাকিস্তানী রাজনীতিবিদ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২৩:৩০ ১৫ জুন ২০১৯  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখোয়ার প্রাদেশিক সরকারের প্রেস কনফারেন্স দেখে পুরো টুইটার সমাজ হাসিতে ফেটে পরেছে। নিয়ম মেনেই ফেইসবুকে সংবাদ সম্মেলনের লাইভ প্রচার করছিলেন তারা। কিন্তু বিপত্তি বাধায় ক্যাট ফিল্টার। লাইভের সময় ক্যাট ফিল্টার অন থাকায় বিড়ালের কান ও মোচ এঁটে যায় রাজনীতিবিদ শওকত ইউসুফজায়ীর মুখে।

এ জন্য আসলে তিনি দায়ী নন। কারণ লাইভটা প্রচার করছিল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের সোশ্যাল মিডিয়া টিম। তারাই লাইভ ভিডিও প্রচার করার সময় ক্যাট ফিল্টার বন্ধ করতে ভুলে যান। লাইভটি প্রচার হওয়ার সময় অনেকেই পেইজে ম্যাসেজ করে অ্যাডমিনকে ক্যাট ফিল্টার সরাতে বলেন। 

পেইজের পক্ষ থেকে ভিডিওটি ডিলিট করা হলেও বিষয়টি নিয়ে টুইটারে ব্যাপক হাসাহাসি চলছে।পাকিস্তানের খ্যাতনামা সাংবাদিক মনসুর আলী খান টুইটারে লেখেন, খাইবার পাখতুনখোয়ার সরকারের সোশ্যাল মিডিয়া টিমের কল্যাণে মন্ত্রী সভায় এখন বিড়ালও আছে। টুইটারে আরেক ব্যবহারকারী লেখেন, ফিল্টার সরাও, মানুষগুলো বিড়াল হয়ে গেছে। 

ফিল্টার সহ রাজনীতিবিদ শওকত ইউসুফজায়ীকে দেখে এক টুইটার ব্যবহারকারী লেখেন, সবচেয়ে কিউট পলিটিশিয়ান। এর আগে বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও কাণ্ডজ্ঞানহীন কাজ করে ইন্টারনেটে সমালোচনার পাত্র হন। 

সাংহাই কোঅপারেশন সম্মেলনে অংশ নিতে তিনি কাজাখস্তানে অবস্থান করছেন। সেখানে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরু হওয়ার আগে সব দেশের রাষ্ট্রপ্রধানরা যখন দাঁড়িয়ে ছিলেন তখন বসেছিলেন ইমরান খান। স্বাগতিক দেশের রাষ্ট্রপ্রধানকে স্বাগত জানাতেই প্রোটোকলের অংশ হিসেবে দাঁড়িয়ে থাকতে হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমএস