কোলনকে হারিয়ে শীর্ষে বায়ার্ন মিউনিখ

ঢাকা, বুধবার   ০১ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ১৮ ১৪২৬,   ০৭ শা'বান ১৪৪১

Akash

কোলনকে হারিয়ে শীর্ষে বায়ার্ন মিউনিখ

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:১৪ ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

কোলনের বিপক্ষে ৪-১ গোলের অ্যাওয়ে জয় নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে ওঠার পরও বায়ার্ন মিউনিখের অধিনায়ক ম্যানুয়েল নয়্যার বলেছেন যে এই ম্যাচে চ্যাম্পিয়নদের অন্তত ১০ গোলের বেশি পাওয়া উচিৎ ছিল।

ওয়ার্ডার ব্রেমেনের বিপক্ষে নিজেদের মাঠে ৩-০ গোলে জয় নিয়ে আরবি লিপজিগ পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে ওঠার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই তাদের স্থানচ্যুত করল বায়ার্ন। কোলনে অনুষ্ঠিত ম্যাচের ১২ মিনিটের মধ্যেই ৩-০ গোলের লিড নেয় বায়ার্ন। যে কারণে নয়্যার বলেন, আমাদের অন্তত ১০ গোল পাওয়া উচিৎ ছিল। জয়ের ব্যবধান অবশ্যই ৪-১ গোলের বেশী হওয়ার কথা।

বিজয়ী দলের হয়ে সার্জি জিনাব্রের জোড়া গোলের পাশাপাশি বাকি গোলগুলো করেছেন রবার্ট লেফানডস্কি ও কিংসলে কোম্যান। কোলনের হয়ে একমাত্র গোলটি পরিশোধ করেছেন শালকে থেকে ধারে যোগ দেয়া মার্ক উত। এই নিয়ে সর্বশেষ আট ম্যাচের মধ্যে সাতটিতে জয় ও একটিতে ড্র করেছে বায়ার্ন মিউনিখ।

ম্যাচের তৃতীয় মিনিটেই টমাস মুলারের পাস থেকে বল পেয়ে গোল করেন লেফানডস্কি (১-০)। লিগে এটি ছিল তার ২৩তম গোল। পঞ্চম মিনিটে মুলারের পাস থেকে গোল করেন কোম্যান (২-০)। ১২ মিনিটের মাথায় জিনাব্রের জোড়ালো শটের বল ঠিকানা খুঁজে পেলে ব্যবধান ৩-০ তে উন্নীত হয়। দলের এমন পরিণতি দেখে মুহূর্তেই স্তম্ভিত হয়ে যায় স্বাগতিক দর্শকরা।

এরপর কিছুটা ছন্নছাড়া হয়ে যায় সফরকারীদের খেলা। এ সময় জিনাব্রের শট পোস্টের বাইরে চলে যাওয়ার পর বায়ার্নের মিডফিল্ডার জসুয়া কিমিচের শট ফিরে আসে বারে লেগে। মুলার নিজেও গোল করার দারুণ একটি সুযোগ হাতছাড়া করেন। ফলে ৩-০ গোলের লিড নিয়েই বিরতিতে যায় বায়ার্ন।

তবে বিরতির পর ম্যাচের চেহারা পাল্টে যায়। এ সময় প্রথমার্ধের ধাক্কা কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করে কোলন। এমনকি হ্যাটট্রিক করতে পারতেন করডোবা। কলম্বিয়ান ওই ফরোয়ার্ডের দুটি গোল বাতিল হয়েছে ভিএআরের সিদ্ধান্তে। আর একটি বাতিল হয়েছে অফসাইডের কারণে।
এরই মধ্যে বলতে গেলে স্রোতের বিপরীতে গিয়ে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করে বসেন জিনাব্রে। আর্সেনালের সাবেক এই উইঙ্গার তিনজন ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে চমৎকার বাঁকানো শটে লক্ষ্য ভেদ করেন। চলতি মৌসুমে তার ১২তম ওই গোলের কল্যাণে ৪-০ গোলে এগিয়ে যায় বায়ার্ন। তবে ৭০ মিনিটের সময় কোলনের হয়ে একটি মাত্র গোল ফিরিয়ে দেন উত (৪-১)।

এই ফলাফলে লিপজিগের চেয়ে এক পয়েন্টে এগিয়ে গেল বায়ার্ন। শুক্রবার ফ্রাঙ্কফুর্টকে ৪-০ গোলে হারানো বরুশিয়া ডর্টমুন্ড ৪ পয়েন্ট কম নিয়ে অবস্থান করছে তালিকার তৃতীয়স্থানে। রোববার বিকেলে মিজের সঙ্গে গোলশুন্য ড্র করা শালকে তালিকার ষষ্ঠ স্থান ধরে রেখেছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এম