কোড বা লিংকে ক্লিক করলেই বিকাশ থেকে চলে যাচ্ছে টাকা

ঢাকা, শুক্রবার   ০৩ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২০ ১৪২৬,   ০৯ শা'বান ১৪৪১

Akash

কোড বা লিংকে ক্লিক করলেই বিকাশ থেকে চলে যাচ্ছে টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১২:৫৯ ১৪ মার্চ ২০২০  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

বিকাশের গ্রাহকদের মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করে তাকে ফোন দিয়ে বিভিন্ন কোড ডায়ালের পরামর্শ, অথবা খুদে বার্তায় বিভিন্ন লিংক পাঠিয়ে তাতে ক্লিক করলেই গ্রাহকের অ্যাকাউন্ট থেকে প্রতারকের অ্যাকাউন্টে টাকা চলে যায়। এজেন্টদের নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা দিয়ে বিকাশ অফিসের নম্বর ক্লোন করে এ ধরনের কর্মকাণ্ড চালাচ্ছে মোবাইল ব্যাংকিং জালিয়াত চক্র। 

এ চক্রের এক হোতাকে গ্রেফতারের শুক্রবার আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে এসব তথ্য জানিয়েছেন র‌্যাব-৩ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল রকিবুল হাসান।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সোহেল র‌্যাবকে জানায়, ২০১৭ সাল থেকে সে মোবাইল ব্যাংকিং প্রতারণার সঙ্গে যুক্ত। প্রতারণার মাধ্যমে গ্রাহকদের বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। তার আরো ৪-৫ জন সহযোগী আছে। 

র‌্যাব-৩ এর অধিনায়ক বলেন, কোনো গ্রাহক যদি বড় অঙ্কের টাকা লেনদেন করেন, তাহলে সেই নম্বর ও তথ্য এজেন্টদের টাকা দিয়ে সংগ্রহ করে জালিয়াত চক্রটি। নম্বর পাওয়ার পর তারা মোবাইল ব্যাংকিং সেবাদাতা কোম্পানির নম্বর ক্লোন করে কল দিয়ে বলত- আমি বিকাশ, রকেট বা নগদ অফিস থেকে বলছি, আপনি যে টাকা পাঠিয়েছেন বা আপনার অ্যাকাউন্টে যে টাকা এসেছে, সেই টাকা ভুল নম্বরে চলে গেছে। এমন সব প্রতারণামূলক কৌশলে তারা গ্রাহকদের বিভিন্ন কোড ডায়াল করতে বলে।  অথবা তারা মেসেজ দিয়ে বিভিন্ন লিংক পাঠায়। গ্রাহকরা সেই কোড বা লিংকে ক্লিক করলেই টাকা প্রতারক চক্রের অ্যাকাউন্টে চলে যায়।

তিনি আরো বলেন, বৃহস্পতিবার রাত ১০ টায় মিরপুর-১ এর ১৯ নম্বর রোডের ৩৩ নম্বর বাসায় অভিযান চালিয়ে প্রতারক চক্রের হোতা মো. সোহেল আহম্মেদকে গ্রেফতার করা হয়। তার কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ সিম কার্ড ও মাল্টি সিম গেটওয়ে ডিভাইস ও কয়েকটি মোবাইল উদ্ধার করা হয়। সেই সঙ্গে তার কাছ থেকে একটি ল্যাপটপ, একটি সিগন্যাল বুস্টার, তিনটি মডেম ও অন্যান্য সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।
 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএস