কেমন হবে ২০১৯ সালের স্মার্টফোন বাজার?

ঢাকা, সোমবার   ০৬ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২৩ ১৪২৬,   ১২ শা'বান ১৪৪১

Akash

কেমন হবে ২০১৯ সালের স্মার্টফোন বাজার?

ফিচার ডেস্ক

 প্রকাশিত: ১১:৪৪ ২৭ ডিসেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১১:৪৪ ২৭ ডিসেম্বর ২০১৮

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

শিরোনাম পড়েই বুঝতে পারছেন, এই আলোচনাটুকু নতুন বছরের স্মার্টফোন বাজার নিয়ে। বৈশ্বিক স্মার্টফোন বাজার কয়েক বছর ধরেই বড় ধরনের উত্থান-পতনের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। কে, কখন, কীভাবে বাজারের শীর্ষস্থান দখল করছে তা খুব সহজে ধরতে পারছে না কেউ। কারণ, এখন গবেষণার যুগ। সব প্রতিষ্ঠানই গবেষণার মাধ্যমে চেষ্টা করছে চমক দিয়ে নিজেদের নতুন বাজার তৈরী করার।

ইয়াহু টেক তাদের এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, নতুন বছরে স্মার্টফোন ডিভাইসের রমরমা ব্যবসা আগের মতো থাকবে না। বাড়বে তীব্র প্রতিযোগীতা। বিশেষ করে স্যামসাং ও হুয়াওয়ের মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে বেশ ভয়াবহ রূপে। বাকীরাও পিছিয়ে থাকবে না, যেকোনো সময় বৈশ্বিক স্মার্টফোন বাজারে কিছু ইতিবাচক পরিবর্তন দেখিয়ে দিতে পারে।

হ্যান্ডসেট কেন্দ্রিক উদ্ভাবনী প্রযুক্তি উন্মোচনের ক্ষেত্রে দক্ষিণ কোরিয়াভিত্তিক স্যামসাং ও চীনভিত্তিক হুয়াওয়ে টেকনোলজিস লিমিটেডকে এগিয়ে রাখা হচ্ছে। হ্যান্ডসেট ডিভাইস বাজারকে আগের অবস্থানে ফেরাতে ফোল্ডেবল স্মার্টফোনে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে এ দুই প্রতিষ্ঠান। পাশাপাশি ফোল্ডেবল স্মার্টফোন আনতে কাজ করছে অন্য ডিভাইস নির্মাতারাও।

বছর খানেক আগে ‘আইফোন টেন’ দিয়ে নতুন উদ্ভাবনের সঙ্গে পরিচয় করিয়েছে মার্কিন প্রযুক্তি কোম্পানি অ্যাপল। তবে আইফোনের চলতি বছরের তিন সংস্করণে তেমন বড় কোনো পরিবর্তনের দেখা মেলেনি। আগামী বছরের সংস্করণগুলোয়ও সৃজনশীল কোনো প্রযুক্তির দেখা মিলবে না বলে মনে করা হচ্ছে।

নোকিয়া ও শাওমি থাকবে এরপরের তালিকায়। ধারণা করা হচ্ছে, তাদের ব্যবসার পরিধি খুব বেশি বাড়বে না।

চীনা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে ২০১৮সালে ডিভাইস সরবরাহ প্রথমবারের মতো ২০ কোটি ইউনিট ছাড়িয়ে গেছে। তবে ডিভাইস সরবরাহে এখনো স্যামসাংয়ের চেয়ে অনেকটাই পিছিয়ে রয়েছে হুয়াওয়ে। স্যামসাং চলতি বছরের প্রথম ৯মাসেই এর ডিভাইস সরবরাহ ২২ কোটি ৩০ লাখ ইউনিট ছাড়িয়ে গেছে।

ডিভাইস নির্মাতাদের ফোল্ডেবল স্মার্টফোনের কয়েকটি পেটেন্ট কাঠামো দেখে মনে করা হচ্ছে, ফোল্ডেবল স্মার্টফোন উন্নয়নে হিনজ বা কবজা ডিজাইন সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব পাবে আগামী বছর। ডিভাইসগুলো গেম চেঞ্জার হবে। কারণ ফোল্ডেবল ডিভাইসে স্মার্টফোন ও ট্যাবলেটের সব সুবিধাই মিলবে।

ডেইলিবাংলাদেশ/এনকে