কিশোর কুমারের জন্মবার্ষিকীতে জীবনের অজানা কাহিনী
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=197909 LIMIT 1

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০,   আশ্বিন ৭ ১৪২৭,   ০৪ সফর ১৪৪২

কিশোর কুমারের জন্মবার্ষিকীতে জীবনের অজানা কাহিনী

বিনোদন ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২২:১১ ৪ আগস্ট ২০২০  

কিশোর কুমার

কিশোর কুমার

প্রথাগত তালিম ছাড়াই হয়ে উঠেছিলেন বলিউডের অন্যতম প্রতিষ্ঠান। ‘বিস্ময়’ শব্দটা তার জীবনেরই সমার্থক। তিনি কিশোর কুমার। জন্মবার্ষিকীতে সেই কিংবদন্তির জীবনের কিছু জানা-অজানা তথ্যে এক ঝলক ফিরে দেখা।

বিখ্যাত গায়ক কিশোরকুমার চারবার বিয়ে করেছিলেন। যাদের সঙ্গে তার বিয়ে হয়েছিল তারা প্রত্যেকেই সিনেমা জগতেরই লোক। তারা ছবির নায়িকা এমনকি পাশাপাশি কেউ গায়িকাও বটে।

কিশোর কুমারের সঙ্গে প্রথম বিয়ে হয়েছিল রুমা গুহ ঠাকুরতার। তিনি অভিনেত্রী তথা গায়িকা। রুমার মা সতী দেবী ছিলেন সেই যুগের বিখ্যাত গায়িকা। বাবা সত্যেন ঘোষ। মা সতী দেবী, আলমোড়ায় উদয় শংকর কালচার সেন্টারের মিউজিক এন্সম্বলের সদস্য ছিলেন ও পরে মুম্বাইয়ে পৃথ্বী থিয়েটারে মিউজিক ডিরেকটার (দেশের প্রথম মহিলা সংগীত পরিচালক) হন। তাই রুমার ছেলেবেলা কেটেছে আলমোড়া ও মুম্বাইয়ে। সতী দেবীর পিসতুতো ভাই হলেন বরেণ্য চিত্রপরিচালক সত্যজিৎ রায়।

১৯৫০ সালে কিশোর কুমারের সঙ্গে রুমার বিয়ে হয় ও তাদের পুত্র সুগায়ক অমিত কুমার। ১৯৫৮ সালে তার দাম্পত্য জীবনে বিচ্ছেদ হয় এবং ১৯৬০ সালে অরূপ গুহঠাকুরতাকে বিবাহ করেন তিনি। বহু ছবিতে অভিনয়় করার পাশাপাশির তিনি গান গেয়েছেন এবং ১৯৫৮ সালে কলকাতা ইয়ুথ কয়্যার প্রতিষ্ঠা করেন রুমা গুহ ঠাকুরতা।

এরপর ‘ঢাকে কি মালমাল’ (১৯৫৬) ছবিতে অভিনয় করতে গিয়ে কিশোর কুমারের সঙ্গে পরিচয় হয়েছিল বলিউডের নায়িকা মধুবালার। ১৯৬০ সালে তাদের বিয়ে হয়। মধুবালার হৃৎপিন্ডে জন্মগত ছিদ্র ছিল। যার অধুনিক নাম ভেন্ট্রিকুলার সেফটাল ডিফেক্ট (ভিএসডি)। ১৯৬০ সালে কিশোর কুমারকে বিয়ের পর চিকিৎসার জন্য লন্ডন যান মধুবালা। কিন্তু চিকিৎসকরা জানিয়ে দেন, বড়জোর এক বছর বাঁচবেন তিনি। কিন্তু পরে আরো কয়েক বছর বেঁচে ছিলেন। ১৯৬৯ সালে মারা যান।

এর বেশ কিছুদিন পরে বলিউডের অভিনেত্রী যোগিতা বালি সঙ্গে কিশোর কুমারের ঘনিষ্ঠতা হয়।‌ ১৯৭৬ সালে কিশোর কুমার যোগিতা বালিকে বিয়ে করেন। তবে সে বিয়েও বেশিদিন টেকেনি। ১৯৭৮ সালে তাদের ডিভোর্স হয়ে যায়। পরবর্তীকালে মিঠুন চক্রবর্তী কে বিয়ে করেন যোগিতা বালি।

এরপর কিশোরকুমার বিয়ে করেন অভিনেত্রী লীনা চন্দ্রাভারকারকে। কিশোর কুমারের ছোট ছেলে সুমিত বলিউডের এই অভিনেত্রী লীনার পুত্র। ১৯৮০ সালে লীনার সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল কিশোর কুমারের। তাদের দ ‘জনের বয়সের পার্থক্য ছিল প্রায় কুড়ি বছরের। ১৯৮৭ সালে কিশোর কুমারের মৃত্যু হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিএএস