কাতার বিশ্বকাপের উদ্বোধন ২১ নভেম্বর
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=194275 LIMIT 1

ঢাকা, রোববার   ০৯ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২৫ ১৪২৭,   ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

কাতার বিশ্বকাপের উদ্বোধন ২১ নভেম্বর

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:১৭ ১৫ জুলাই ২০২০  

কাতার বিশ্বকাপ-২০২২

কাতার বিশ্বকাপ-২০২২

মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে বদলে গেছে ক্রীড়াঙ্গন সূচী। তারপরও মহামারি কাটিয়ে মাঠে গড়িয়েছে খেলা। এরই মধ্যে ২০২২ সালের বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচের তারিখ ঘোষণা করলো স্বাগতিক দেশ কাতার। গত সালের বিশ্বকাপের ফাইনালের দিনেই এই সূচি ঘোষণা করলো কাতার।

বুধবার জানা যায়, ২০২২ সালের ২১ নভেম্বরে আল বায়েত স্টেডিয়ামে উদ্বোধনী ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। ৬০ হাজার দর্শক এক সঙ্গে এ স্টেডিয়ামে খেলা দেখতে পারবে। 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের বিষয়েও এখনো কোনকিছু জানায়নি আয়োজক কাতার। তবে বিশ্বকাপের জন্য যেভাবে প্রস্তুতি দেখে আশা করাই যায়, জাঁকজমকপূর্ণ একটি অনুষ্ঠান আয়োজন করতে যাচ্ছে তারা।

গেল বিশ্বকাপ ৩২ দিনে অনুষ্ঠিত হলেও, কাতারের তাপমাত্রা বিবেচনায় এবার সেটি কমিয়ে আনা হয়েছে। ২৮ দিনে টুর্নামেন্ট শেষ করবে ফিফা। 

প্রতিদিন অনুষ্ঠিত হবে ৪টি করে ম্যাচ। স্থানীয় সময় দুপুর ১টা, ৪টা, ৭টা এবং ১০টায় ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হবে। 

১৭ ডিসেম্বর তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে খালিফা স্টেডিয়ামে। পরদিন ১৮ ডিসেম্বর আসরের ফাইনাল ম্যাচের ভেন্যু ৮০ হাজার দর্শক ধারণক্ষমতা সম্পন্ন লুসাইল স্টেডিয়াম।  

প্রতিটি ম্যাচই অনুষ্ঠিত হবে দোহার ৮টি ভেন্যুতে। কাছাকাছি সব ভেন্যু হওয়ায় সমর্থকদের পোহাতে হবেনা বাড়তি ঝামেলা। এক স্টেডিয়াম থেকে অন্য স্টেডিয়ামের দূরত্ব মাত্র ৩০ মাইল হওয়ায় সহজেই যাতায়াত করতে পারবেন দর্শকরা।

তবে এখনো চূড়ান্ত হয়নি কোন দল কোন গ্রুপে খেলবে। ২০২২ সালের মার্চের শেষ কিংবা এপ্রিলের শুরুতে গ্রুপ নির্ধারণী ড্র অনুষ্ঠিত হবে। তবে এটিই হতে যাচ্ছে ৩২ দলের শেষ বিশ্বকাপ। পরবর্তি আসর থেকে বাড়ানো হবে অংশগ্রহণকারী দলের সংখ্যা।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস