করোনা সন্দেহে কাছে যায়নি কেউ, বৃদ্ধকে বুকে টেনে নিলেন যুবক

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০,   আশ্বিন ১৫ ১৪২৭,   ১২ সফর ১৪৪২

করোনা সন্দেহে কাছে যায়নি কেউ, বৃদ্ধকে বুকে টেনে নিলেন যুবক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২৩:১৬ ৮ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ২৩:২০ ৮ আগস্ট ২০২০

ছবি- সংগৃহীত

ছবি- সংগৃহীত

৭০ বছরের অসুস্থ এক রিকশাচালক ২৪ ঘণ্টা পড়ে ছিলেন রাস্তার পাশে। করোনা সন্দেহে কেউ কাছে যায়নি।দীর্ঘক্ষণ রাস্তায় এভাবে পড়ে থাকার পর অবশেষে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন সুমন মজুমদার নামের এক যুবক। সেবা দিয়ে তাকে বুকে তুলে নেন তিনি। ভর্তি করালেন হাসপাতালে।

ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার জানায়, সুমন মজুমদার ভারতীয় সেনাবাহিনীর কলকাতা সদর দফতরে কেরানির পদে কর্মরত। গর্ভবতী স্ত্রীকে নিয়ে অটোগাড়িতে করে ডাক্তারের কাছে যাওয়ার পথে বৃদ্ধ রিকশাচালককে দেখতে পান। রাস্তার পাশে বৃদ্ধকে এভাবে দেখে স্ত্রীকে অটোতে বসিয়ে রেখে রিকশাচালককে সাহায্য করতে এগিয়ে যান তিনি।

সুমন যখন কাছে যাচ্ছিলেন তখন দেখেন রাস্তায় পড়ে পানি খাওয়ার জন্য কাতরাচ্ছেন অসুস্থ বৃদ্ধ। করোনা সন্দেহে পথ চলতি মানুষ সাহায্য না করলেও সুমন অসুস্থ স্ত্রীকে রাস্তার পাশে দাঁড় করিয়ে নিজের কোলে তুলে নিয়ে অসুস্থ রিকশাচালককে পানি খাইয়ে কিছুটা সুস্থ করে তোলেন। পরে তাকে নেয়া হয় হাসপাতালে।

স্থানীয় পুলিশের সহযোগিতায় অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থা করা হয়। এরপর কোলকাতার উত্তর বারাকপুরের একটি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয় বৃদ্ধকে। আর এই পুরো সময়টা জুড়ে রিকশাচালক বৃদ্ধকে নিজের কোলে করে রেখেছিলেন সুমন।  

সুমন বলেন, এভাবে মৃত্যুপথযাত্রী অসুস্থ ব্যক্তিকে রাস্তায় ফেলে চলে যাওয়াটা অন্যায়। স্ত্রী অসুস্থ হলেও বৃদ্ধকে আগে হাসপাতাল পাঠানোর দরকার ছিল। করোনার ভয়ে কে সাহায্য করলো আর কে সাহায্য করলো না, তা ভেবে লাভ কি? আমি যতটা পারলাম চেষ্টা করেছি। আশা করছি উনি সুস্থ হয়ে উঠবেন। 

এদিকে তার এমন মহৎ উদ্যোগ ও পরার্থপরতায় সাধুবাদ জানাচ্ছেন অনেকেই।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএ