করোনা প্রতিরোধে কঠোর অবস্থানে জামালপুর

ঢাকা, বুধবার   ০৮ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২৫ ১৪২৬,   ১৪ শা'বান ১৪৪১

Akash

করোনা প্রতিরোধে কঠোর অবস্থানে জামালপুর

জামালপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:১৪ ২৬ মার্চ ২০২০  

ছবি : ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি : ডেইলি বাংলাদেশ

জামালপুরে প্রশাসন করোনাভাইরাস প্রতিরোধে কঠোর অবস্থানে রয়েছেন। পুরো জেলা জুড়েই চলছে কড়া নজরদারি।

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় নির্দিষ্ট কিছু প্রতিষ্ঠান ব্যতিত জামালপুরে গণবিজ্ঞপ্তি জারি করে সব প্রতিষ্ঠান ও গণপরিবহন বন্ধ করে দিয়েছে জেলা প্রশাসন।

এ সময়ে নিম্নআয়ের মানুষ যাতে অভাবে না থাকে সেই লক্ষে জামালপুরের সাত উপজেলায় ৭০ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দিয়েছে প্রশাসন।

এদিকে গভীর রাতে জামালপুর শহরের সড়কে পানির সঙ্গে ওষুধ মিশিয়ে পুরো সড়ক ভিজিয়ে দেয়া হয়েছে। জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফারুক আহমেদ চৌধুরী নিজ উদ্যোগে এ দায়িত্ব পালন করেছেন।

জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক সুরুজ্জামান বলেন, জামালপুর শহরকে সংক্রমণ এর হাত থেকে নিরাপদ রাখতে, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, জামালপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক, জামালপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফারুক আহাম্মেদ চৌধুরীর উদ্যোগে জামালপুর শহরের বিভিন্ন সড়কে জীবাণুনাশক স্প্রে করা হয়েছে। 

জামালপুরের ইসলামপুরে বাজার, রাস্তা-ঘাটে ফায়ার সার্ভিস ও জনস্বাস্থ্য বিভাগের সহায়তায় জীবাণুনাশক স্প্রে করা হয়।  এ সময় এমপি ফরিদুল হক খান দুলাল, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জামাল আব্দুন নাছের বাবুল, ইউএনও মোহাম্মদ মিজানুর রহমান, থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন পরিদর্শন করেন। 

জামালপুরের ডিসি মোহাম্মদ এনামুল হক জানান, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ও সংক্রমণ মোকাবিলায় খাদ্য সামগ্রী, ওষুধ, চিকিৎসা সেবাকেন্দ্র, নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদির দোকান, কাঁচা বাজার ব্যতিত জামালপুরের সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, গণপরিবহন বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এ আপদকালীন সময়ে নিম্ন আয়ের মানুষেরা যাতে অভাবে না থাকে সেই লক্ষে জামালপুরের সাত উপজেলার জন্য ৭০ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। 

এদিকে বিরাজমান এ পরিস্থিতি মোকাবিলায় জামালপুর জেলা সদরসহ সাতটি উপজেলায় লকডাউন ঘোষণা করেছেন ডিসি মো. এনামুল হক। ওষুধ ও  নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দোকান ছাড়া সব দোকানপাট বন্ধে গণবিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন। আইন শৃঙ্খলা বাহিনী জনসাধারণকে প্রয়োজন ছাড়া আড্ডা না দেয়ার জন্য বারবার মাইকিং করে অনুরোধ করা হচ্ছে।

জামালপুরের সিভিল সার্জন ডা. গৌতম রায় বলেছেন, আজ পর্যন্ত ৪৭৪ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। এছাড়া বুধবার সকাল থেকে প্রশাসনের নির্দেশে পুলিশ র‌্যাবসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা শহরে অভিযান পরিচালনা করেন। এছাড়া সিএনজি, অটোরিকশা, লেগুনা ও লোকাল বাসসহ সব গণপরিবহন বন্ধ থাকবে। তবে, জনসাধারণের সুবিধার্থে খাদ্যদ্রব্যের পাইকারি বাজার সকাল ৬টা থেকে বিকার ৫টা পর্যন্ত খোলা থাকবে।

অপরদিকে  করোনাভাইরাস প্রতিরোধে  ডিসি’র নির্দেশনায় জামালপুর পতিতা পল্লী লকডাউন থাকায় সেখানে বৃদ্ধা,নারী ও শিশুসহ মোট ২১১ জন যৌনকর্মী ও তাদের সন্তানদের ৩০ কেজি করে চাল বিতরণ করা হয়েছে। বুধবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে জামালপুর পৌরসভার আয়োজনে ২১১ জন যৌনকর্মী ও তাদের সন্তানদের ৩০ কেজি করে চাল বিতরণ করেন মেয়র মির্জা সাখাওতুল আলম মনি, প্যানেল মেয়র ফজলুল হক, ৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র রাজীবসহ আরো অনেকে। 

এ সময় তারা বলেন, করোনাভাইরাসের ফলে জামালপুরের রানীগঞ্জ পতিতা পল্লী লকডাউন হওয়ায় যৌনকর্মী ও তাদের পরিবারের সুরক্ষায় পৌরসভা থেকে তাদের চাল, ডাল, তেল, পেঁয়াজ বিরতণ করা হবে। 

এছাড়া প্রশাসন সরিষাবাড়ি, মেলান্দহ, মাদারগঞ্জ, ইসলামপুর, দেওয়ানগঞ্জ ও বকশিগঞ্জে স্থানীয় প্রশাসন পুরো উপজেলাতে কঠোর নজরদারিতে রেখেছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ