করোনা নিয়ে গুজব ছড়ানোয় দুইজন গ্রেফতার

ঢাকা, রোববার   ০৭ জুন ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ২৪ ১৪২৭,   ১৪ শাওয়াল ১৪৪১

Beximco LPG Gas

করোনা নিয়ে গুজব ছড়ানোয় দুইজন গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক   ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:৫০ ২ এপ্রিল ২০২০   আপডেট: ১৮:০৬ ৫ এপ্রিল ২০২০

আটক দুই ব্যক্তি

আটক দুই ব্যক্তি

ফেসবুকে করোনাভাইরাস (COVID-19) নিয়ে গুজব ছড়ানোর অপরাধে গাজীপুরের কোনাবাড়ী ও কাপাসিয়া থেকে দুইজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। গ্রেফতাররা হলো,মো. আব্দুর রহমান মিলন (৪৮)ও মো. আমিনুল ইসলাম বিল্লাল (৩৩)।

বৃহস্পতিবার র‍্যাব-১ এর (সিপিসি-১) কোম্পানি কমান্ডার এএসপি কামরুজ্জামান ডেইলি বাংলাদেশকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। এসময় তাদের কাছ থেকে ২টি মোবাইল, গুজব সৃষ্টিকারী স্কিনশর্টের ৯টি কপি এবং সরকার ও রাষ্ট্রবিরোধী ফেসবুক পোস্টের ৫ কপি উদ্ধার করা হয়। 

তিনি বলেন, বুধবার রাতে গাজীপুর কাপাসিয়ার ঘাগটিয়া হরিনাচালা বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১।

কামরুজ্জামান বলেন, কোনাবাড়ী থানার হরিনাচালা বাজার পন্ডিত আলী প্লাজা (পারিজাত) এর মেসার্স রাজশাহী মেডিকেল স্টোর কেমিস্ট অ্যান্ড ড্রাগিস্ট নামক দোকানে অভিযান চালিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব সৃষ্টিকারী দুজনকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, তারা ব্যক্তিগত মোবাইল ব্যবহার করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম (ফেসবুক) আলোচিত স্পর্শকাতর রোগ (COVID-19) করোনাভাইরাস নিয়ে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন তথ্য পোস্ট, শেয়ার এবং বিভিন্ন কমেন্টের মাধ্যমে গুজব সৃষ্টিকরে জনমনে বিভ্রান্তি ও ভীতির পরিবেশ সৃষ্টিসহ সামাজিক অস্থিরতা ও আইনশৃংখলা পরিস্থিতি অবনতির চেষ্টা করছে বলে আসামিরা স্বীকার করেছে। 

গ্রেফতার আব্দুর রহমান মিলনকে জিজ্ঞাসাবাদ জানা যায়, গাজীপুরের কোনাবাড়ী এলাকায় তার একটি ওষুধের ফার্মেসি রয়েছে। সে দীর্ঘ ১৮ বছর ধরে ফার্মেসিটি পরিচালনা করে আসছে। সে বিভিন্ন সময় দেশকে অস্থিতিশীল করার লক্ষ্যে চলমান সামাজিক, রাজনৈতিক ও সমসাময়িক বিষয় নিয়ে ফেসবুকে সরকার ও রাষ্ট্রবিরোধী বিভিন্ন মিথ্যা তথ্য পোস্ট করে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করে আসছিল। তার বিরুদ্ধে সরকারি কাজে বাধাদান, সরকারি কর্মচারীর গায়ে আঘাত করা এবং ভাংচুরের অভিযোগে গাজীপুরর কানোবাড়ী থানায় একটি মামলা রয়েছে। মামলায় আসামি আব্দুর রহমান ১ মাস কারাভোগ করেছে বলে জানা গেছে। 

অপর আসামি আমিনুল ইসলাম বিল্লালকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, সে গাজীপুরের কাপাসিয়া এলাকায় একটি ইলেকট্রনিক্স শো-রুমে কর্মরত। সে সাম্প্রতিক সময় সারাবিশ্বে আলোচিত স্পর্শকাতর রোগ (COVID-19) করোনাভাইরাস নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অসত্য ও ভিত্তিহীন তথ্য পোস্ট ও শেয়ার করে জনমনে ভীতি ও আতঙ্ক সৃষ্টি করে আসছিল বলে স্বীকার করেছে। 

উদ্বারকৃত আলামত ও গ্রেফতারকৃত আসামিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

ডেইলি বাংলাদেশ/ইএ/আরএইচ/এমআরকে/