করোনায় মৃত্যু: ৩৬ ঘণ্টা পড়েছিল নিথর দেহ, কাছে যায়নি বাবা-মাও

ঢাকা, শুক্রবার   ০৪ ডিসেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ২১ ১৪২৭,   ১৭ রবিউস সানি ১৪৪২

করোনায় মৃত্যু: ৩৬ ঘণ্টা পড়েছিল নিথর দেহ, কাছে যায়নি বাবা-মাও

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:২১ ১২ মার্চ ২০২০   আপডেট: ১৩:২৫ ১২ মার্চ ২০২০

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ার পর প্রায় ৩৬ ঘণ্টা বাড়িতেই মরদেহ পড়েছিল। শনিবার ইতালির নেপলেস শহরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৪০ বছর বয়সী থেরেসা ফ্রান্জাসে মারা যান।

আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, থেরেসার মরদেহ ওই বাড়িতে তার ভাই, বাবা-মা এবং অন্য সদস্যদের উপস্থিতিতে পড়ে ছিল ৩৬ ঘণ্টার মতো।

ওই নারীর ভাই লুসা বলেন, আমার বোন সম্ভবত করোনায় আক্রান্ত হয়েই মারা গেছে। গত রাত পর্যন্ত আমি দেহ সৎকারের অপেক্ষায় ছিলাম।

তিনি আরও বলেন, পরিবারের সবাইকে আমি করোনা পরীক্ষার কথা বলেছি। আমরা ধ্বংস হয়ে গেছি, আমাদের সব হারিয়ে গেল।

লুসা এ ব্যাপারে একটি ভিডিও তৈরি করে ফেসবুকে পোস্ট করেন। পরে অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার সঙ্গে জড়িত একটি সংস্থা ওই দেহ সংগ্রহের আগ্রহ দেখায়।

আপ্রিয়া ফিউনারেল হোমের কর্মকর্তারা বলছেন, এটা একেবারেই বিভৎস একটা ব্যাপার। আমরা মাস্ক, সুরক্ষিত জুতা, স্যুট, গ্লাভসসহ অন্যান্য জিনিস পরিহিত অবস্থায় মরদেহ উদ্ধার করেছি।

স্থানীয় মেয়র সাংবাদিকদের বলেছেন, এটি অস্বাস্থ্যকর ব্যাপার। আমরা এখনো জানি না এ ধরনের পরিস্থিতিতে কী করা উচিত। তবে কারো উচিত তাদের সাহায্য করা।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএস