করোনায় দিশেহারা যুক্তরাষ্ট্র, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১০৩৭
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=171416 LIMIT 1

ঢাকা, শনিবার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০,   আশ্বিন ৫ ১৪২৭,   ০১ সফর ১৪৪২

Beximco LPG Gas

করোনায় দিশেহারা যুক্তরাষ্ট্র, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১০৩৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:৩৪ ২৬ মার্চ ২০২০   আপডেট: ২১:৪৩ ২৬ মার্চ ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

চীন থেকে ছড়িয়ে পড়া মহামারি করোনাভাইরাসে দিশেহারা যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে ভয়াবহ রূপ নেয়া এই ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১ হাজার ৩৭ জনে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া আক্রান্ত হয়েছে আরো ৬৮ হাজার ৮১৪ জন। বর্তমানে করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে চীন ও ইতালির পরই দেশটির অবস্থান। আর মৃত্যুর দিক থেকে দেশটি আছে তালিকার ষষ্ঠ অবস্থানে।

যুক্তরাষ্ট্রে করোনার মূলকেন্দ্র হয়ে উঠছে অন্যতম বড় শহর নিউ ইয়র্ক। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ হাজার ছাড়িয়েছে। মৃত্যু হয়েছে তিন শতাধিকেরও বেশি।

মার্কিন সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল জানিয়েছে, শহরটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়েই চলছে। আইসোলেশন ওয়ার্ডে বেডের সংখ্যা অপর্যাপ্ত। বেলভিউ হাসপাতালে নতুন মর্গ তৈরি করা হয়েছে। আরো কয়েকটি আইসোলেশন ওয়ার্ড তৈরির চেষ্টা চলছে হাসপাতাল-নার্সিংহোমে।

নিউ ইয়র্ক সিটি মেয়র বিল দে ব্লাসিও বলেছেন, নিউ ইয়র্কের পরিস্থিতি সন্তোষজনক নয়। বরং সংক্রমণ বেড়েই চলেছে পাল্লা দিয়ে। আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য উপযুক্ত ব্যবস্থার অভাবও রয়েছে। এমনটা চলতে থাকলে খুব দ্রুত ফুরিয়ে যাবে ভেন্টিলেটর, হাই-ফ্লো অক্সিজেন মাস্ক। মিলবে না সার্জিক্যাল মাস্কও।

তিনি আরো বলেন, আক্রান্তদের চিকিৎসা সেভাবে করা যাচ্ছে না। তাছাড়া সংক্রমণ সন্দেহে আসা রোগীদের জন্য কোয়ারেন্টাইন সেন্টারও কম রয়েছে। এমন সঙ্কট চলতে থাকলে আরো বেশি মানুষ মরবে নিউ ইয়র্কে।

মার্কিন স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রে ভাইরাসের সংক্রমণ ছড়াতে শুরু করার পরেও বিশেষ ব্যবস্থা নেয়নি সরকার। অবাধে চলেছে সামাজিক মেলামেশা। ঠিক যেমনটা হয়েছে ইতালি, স্পেনে। যার কারণেই সংক্রমণ এত বেশি ছড়িয়ে পড়েছে।

এদিকে শ্রমিক, ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান এবং স্বাস্থ্য সেবা খাতের জন্য ২ লাখ কোটি ডলারে একটি প্রণোদনা তহবিলে অনুমোদন দিয়েছে মার্কিন পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ সিনেট।

এটির ফলে বর্তমান পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সূত্র : বিবিসি

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী