করোনায় জনস্বাস্থ্যকে গুরুত্ব দিতে হবে: স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা

ঢাকা, সোমবার   ১৩ জুলাই ২০২০,   আষাঢ় ৩০ ১৪২৭,   ২২ জ্বিলকদ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

করোনায় জনস্বাস্থ্যকে গুরুত্ব দিতে হবে: স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:২৯ ২৬ মে ২০২০  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

বিশ্বকে ভবিষ্যৎ সংকট থেকে বাঁচাতে এবং আরো বেশি স্থিতিস্থাপকতা তৈরির জন্য অর্থনৈতিক ক্ষতি পুনরুদ্ধার প্যাকেজের কেন্দ্রে জনস্বাস্থ্যকে রাখার ব্যাপারে জি-২০ নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বিশ্বের ৯০ দেশের চার কোটি চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যসেবার সঙ্গে যুক্ত অন্য পেশাদাররা।

জি-২০ নেতাদের বরাবর লেখা এক চিঠিতে তারা জনস্বাস্থ্য, বিশুদ্ধ বায়ু, বিশুদ্ধ পানি এবং বর্তমানে বিবেচনাধীন অর্থনৈতিক উদ্দীপনা প্যাকেজে স্থিতিশীল জলবায়ুতে বিনিয়োগকে অগ্রাধিকার দেয়ার সুপারিশ করেছেন।

চিঠিতে বলা হয়, এ ধরনের বিনিয়োগ মানব স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর বায়ু দূষণ এবং জলবায়ু উষ্ণায়নকে হ্রাস করবে এবং ভবিষ্যতে মহামারিগুলোতে আরো বেশি স্থিতিস্থাপকতা তৈরি করবে।

গ্রুপ অব টোয়েন্টি বা জি-২০ হলো বিশ্বের ২০ দেশের অর্থমন্ত্রী এবং কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নরদের সমন্বয়ে গঠিত একটি জোট বা গ্রুপ। গ্রুপের সদস্য ১৯টি দেশ এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন।

সমষ্টিগতভাবে জি-২০ অন্তর্ভুক্ত দেশগুলো পৃথিবীর মোট জাতীয় উৎপাদনের ৮৫ শতাংশ, বিশ্ব বাণিজ্যের ৮০ শতাংশ এবং বিশ্বের প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ জনসংখ্যার অধিকারী।

প্রসঙ্গত, বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস মহামারিতে সোমবার সকাল পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ৪৫ হাজার ৫৯ জনে। তাদের মধ্যে করোনা রোগীদের সেবা দিতে গিয়ে আক্রান্ত হয়ে অনেক চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্য সংশ্লিষ্ট পেশাদারের মৃত্যু হয়েছে।

জন হপকিন্স করোনাভাইরাস রিসোর্স সেন্টারের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বব্যাপী করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫৪ লাখ। এর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রেই আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ১৬ লাখ। দেশটিতে মারা গেছেন প্রায় ১ লাখ মানুষ।

তবে এগুলো আনুষ্ঠানিকভাবে নিশ্চিত হওয়া সংখ্যা এবং স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অনেক রোগী গুরুতর অবস্থায় থাকায় প্রকৃত পরিস্থিতি আরো খারাপ।

যুক্তরাষ্ট্রের পর মৃতের দিক থেকে দ্বিতীয় খারাপ অবস্থায় রয়েছে যুক্তরাজ্য। এরপরই রয়েছে ইতালি, স্পেন ও ফ্রান্স।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী এ পর্যন্ত ২১৩টিরও বেশি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়েছে করোনাভাইরাস। 

উল্লেখ্য, গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআরকে