করোনার নতুন জাত ‘ডি৬১৪জি’, নিয়ে ভয়! শরীরে ঢুকছে সহজে!
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=191795 LIMIT 1

ঢাকা, শনিবার   ০৮ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২৫ ১৪২৭,   ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

করোনার নতুন জাত ‘ডি৬১৪জি’, নিয়ে ভয়! শরীরে ঢুকছে সহজে!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:৫৩ ৩ জুলাই ২০২০  

করোনাভাইরাসের প্রতীকী ছবি

করোনাভাইরাসের প্রতীকী ছবি

করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে বিশ্বের এক কোটি ১০ লাখ ১৮ হাজার ৯০৭ জন সংক্রমিত হয়েছেন। এর মধ্যে মারা গেছেন পাঁচ লাখ ২৪ হাজার ৫২৮ জন। এবার সেই ভাইরাসটি নতুন জাত বা রূপে মানুষকে সংক্রমিত করছে বলে দাবি করছে গবেষণা। করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) নিজের চরিত্র বদল করে মানুষকে সংক্রমিত করছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ডিউক বিশ্ববিদ্যালয়ের লস আলামোস ন্যাশনাল ল্যাবরেটরি এবং যুক্তরাজ্যের শেফিল্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের দাবি, করোনার নতুন স্ট্রেন বা জাত অথবা বংশের নাম ‘ডি৬১৪জি’। এটি ভাইরাসের সবচেয়ে ভয়ঙ্কর রূপ। এ রূপেই এখন সবচেয়ে বেশি মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে।

গবেষকদের মতে ‘ডি৬১৪জি’ নামের এ রূপ অনেক ছোট। তবে ভাইরাসের উপরিভাগের ‘স্পাইক’ প্রোটিনগুলোতে কার্যকর পরিবর্তন আনতে পারে। ফলে মানুষের শরীরের কোষগুলোতে ভাইরাস খুব সহজে প্রবেশ করতে পারে।

জিআইএসঅ্যাআইডি ডাটা বেইস থেকে সংগ্রহ করা এ তথ্যে ১০ হাজারেরও বেশি ভাইরাল সিকোয়েন্স ছিল। এগুলো দেখেই ভাইরাস নিজেকে পরিবর্তন ও মানুষকে সংক্রমিত করার ধরণ সম্পর্কে সিদ্ধান্ত নেন গবেষকেরা।

শেফিল্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র ক্লিনিক্যাল লেকচারার ডা. থুশান ডি সিলভা জানান, করোনাভাইরাসের সংক্রমণের শুরু থেকেই শেফিল্ডে করোনার স্ট্রেন বা শাখাগুলো নিয়ে সিকোয়েন্সিং করে যাচ্ছেন। করোনার এ রূপ প্রচলিত স্ট্রেনগুলো থেকে ভয়ঙ্কর হয়ে উঠছে।

তিনি জানান, ৩ জুলাই প্রকাশিত পূর্ণ ‘পিয়ার রিভিউ’ সমীক্ষা এটির সত্যতা নিশ্চিত করেছে। করোনার নতুন স্ট্রেনটি পরীক্ষাগারের সবচেয়ে বেশি সংক্রামক।

শেফিল্ডে টিমের দেয়া ডাটা থেকে জানা গেছে, করোনায় আক্রান্ত রোগীর ওপরের শ্বাসযন্ত্রের ট্র্যাকে নতুন স্ট্রেন ‘ডি৬১৪জি’ সবচেয়ে বেশি ভাইরাল লোড দিয়ে আক্রমণ করে। এর মানে মানুষকে সংক্রমিত করার সবচেয়ে বেশি ক্ষমতা করোনার এ স্ট্রেনের রয়েছে।

ভাইরাসের এ স্ট্রেনটি নিয়ে আশার কথা জানিয়েছেন গবেষকেরা। তাদের দাবি, এ স্ট্রেনে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হলেও শারীরিক অবস্থা গুরুতর হবে না।

ডি সিলভার মতে, এ পর্যায়ে এসে ভাইরাসের স্ট্রেনটি মারাত্মক আকার (শরীরে) ধারণ করবে বলে মনে হয় না।

সূত্র- মিরর ইউকে

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ