Alexa করোনাভাইরাসের কারণে চীনে আটকা ৫০০ বাংলাদেশি শিক্ষার্থী

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০,   ফাল্গুন ১৪ ১৪২৬,   ০৩ রজব ১৪৪১

Akash

করোনাভাইরাসের কারণে চীনে আটকা ৫০০ বাংলাদেশি শিক্ষার্থী

শিক্ষাঙ্গণ ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:৫৩ ২৫ জানুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৬:১৩ ২৫ জানুয়ারি ২০২০

ছবিঃ সংগৃহীত

ছবিঃ সংগৃহীত

করোনাভাইরাসের কেন্দ্রস্থল চীনের উহান শহরের অধিকাংশ দোকান বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। সেখানে আটকা পড়েছেন ৫০০ বাংলাদেশি শিক্ষার্থী। তাদের মজুদ রাখা খাবারও ফুরিয়ে এসেছে। ফলে খুব শিগগিরই তারা খাবার সংকটে পড়বেন। 

এরইমধ্যে তারা দেশে ফেরার আকুতি জানিয়েছেন। বাংলাদেশ দূতাবাসের সাহায্য চেয়েছেন। আসিফ সৌরভ পড়ছেন হুবেই ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজিতে। তিনি জানান, উহানের আশপাশের ১০টি শহরের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়েছে। প্রায় ৫০০ জন বাংলাদেশি শিক্ষার্থী এ শহরে আটকা পড়েছেন। 

রাকিবিল তূর্য মেকানিক্যাল অ্যান্ড অটোমেশন ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে হুবেই ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজিতে পড়াশোনা করছেন। ছুটি চলছে বিশ্ববিদ্যালয়ে। তবুও ২৩ জানুয়ারি থেকে হোস্টেলে থাকতে হচ্ছে। এই বিশ্ববিদ্যালয়ে আরো ১৪০ শিক্ষার্থী আটকা পড়েছেন। বাংলাদেশ দূতাবাস ও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষেরে সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে, তারা কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।

শুধু তাই না, যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ থাকায় আমাদের খাবারও ফুরিয়ে আসছে। শিক্ষার্থীরা সবাই আতঙ্কিত এবং চিন্তিত, জানান তূর্য। 

করোনাভাইরাসে চীনে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৪১ জন। আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ১ হাজার ৩০০ জন।

উহানে প্রায় ১১ মিলিয়ন মানুষের বসবাস। তাদের শহর না ছাড়ার পরামর্শ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এছাড়া ভাইরাসটি যাতে অন্য কোথাও ছড়াতে পারে উহানের গণপরিবহন ব্যবস্থাও বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। বিমানবন্দরে সব যাত্রীবাহী বিমান বাতিল করা হয়েছে। শহরের বাইরে যাওয়ার প্রধান সড়কগুলো চেকপয়েন্টের মাধ্যমে বন্ধ করে রাখা হয়েছে।

এদিকে, ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানান, আটকে পড়া শিক্ষার্থীদের কারও সঙ্গে তাদের যোগাযোগ হয়নি।

চীনে আটকে পড়া শিক্ষার্থীরা হটলাইন নম্বরের (https://www.bdembassybeijing.org/contact-us/) মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারবেন বলে জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম