.ঢাকা, বুধবার   ২৭ মার্চ ২০১৯,   চৈত্র ১২ ১৪২৫,   ২০ রজব ১৪৪০

কবর থেকে মরদেহ তুলে জাঁকজমক অনুষ্ঠান!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:৫০ ৮ মার্চ ২০১৯   আপডেট: ২১:৩৭ ৯ মার্চ ২০১৯

ছবি সংগৃহীত

ছবি সংগৃহীত

ইন্দোনেশিয়ার সুলাওয়েসি পর্বতের গ্রামবাসীদের মধ্যে কিছু অদ্ভুত সামাজিক রীতি রয়েছে। এর মধ্যে একটি মৃতের জন্য অন্তেষ্টিক্রিয়া বা শেষকৃত্য অনুষ্ঠান। এই রীতিতে মরদেহ শেষকৃত্যের পর সপ্তাহখানেক পর কবর থেকে তা তুলে জাঁকজমক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। 

গ্রামটির তোরাজান উপজাতিরা এই অন্তেষ্টিক্রিয়া বা শেষকৃত্য অনুষ্ঠান প্রতি তিন বছর পর পর আয়োজন করে। গত কয়েক শতাব্দী ধরে এমন অদ্ভুত রীতি পালন করে আসছেন তোরাজান উপজাতি। শতাব্দী প্রাচীন এ রীতির নাম ‘মানিন’।

দেশটির এক গণমাধ্যম জানায়, তিন বছর পর পর তাদের মৃত স্বজনদের দেহ কবর থেকে তুলে আনেন। পরে মরদেহে পুরনো কাপড় বদলে নতুন কাপড় পরিয়ে দেয়া হয়। এর পর সাজিয়ে-গুছিয়ে হই-হুল্লোড় করে বাড়ি নিয়ে যান তারা। মৃতকে আবার সমাধিস্থ করার আগে কফিনকে মেরামত ও সুসজ্জিত করেন তারা। এছাড়া মৃতকে বাড়ি নিয়ে পালন করা হয় নানা ধরনের অনুষ্ঠান।

তোরাজান উপজাতির বিশ্বাস করে এই মৃত্যুই জীবনের শেষ নয়, এটি শুধু আধ্যাত্মিক জীবনে প্রবেশের একটি পর্যায়। এছাড়া মারা যাওয়া প্রিয়জনের আত্মা কাছে ফিরে আসে বলেও বিশ্বাস করেন তারা। তাই প্রতি বছর মরদেহ কেমন আছেন, তা দেখতে তাদের পরিজনরা মরদেহ কবর থেকে তুলে আনেন।

তোরাজানরা গভীর শ্রদ্ধা ও ভালোবাসার সঙ্গে এমন অদ্ভুত রীতি শতাব্দী ধরে পালন করে আসছেন। এই সম্প্রদাযের লোকজন এখনো বেশ জাঁকজমকভাবে এই রীতি পালন করে থাকেন। 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর