কবরে ১০ দিন বেঁচে বিশ্ব রেকর্ড গড়লেন এ ব্যক্তি

ঢাকা, সোমবার   ৩০ মার্চ ২০২০,   চৈত্র ১৬ ১৪২৬,   ০৫ শা'বান ১৪৪১

Akash

কবরে ১০ দিন বেঁচে বিশ্ব রেকর্ড গড়লেন এ ব্যক্তি

ফিচার ডেস্ক  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:০৪ ১৩ মার্চ ২০২০   আপডেট: ১৮:০৭ ১৩ মার্চ ২০২০

কবরের কফিনে শায়িত জার্মানের নাগরিক জেডেনেক জহ্রাডকা

কবরের কফিনে শায়িত জার্মানের নাগরিক জেডেনেক জহ্রাডকা

পৃথিবীতে মানুষের ইচ্ছার কোনো শেষ নেই। একেক জনের চিন্তা একেক রকম। অনেকের ইচ্ছা এতোটাই ভয়ানক যে তা শুনলে রীতিমতো চমকে যাবেন আপনি। কখনো কি শুনেছেন জীবিত অবস্থায় কেউ কফিনে থাকতে চায়? তাও আবার কোনো রকম খাবার বা পানি ছাড়াই।

সম্প্রতি এক ব্যক্তি এমনই কাণ্ড করে গড়েছেন বিশ্ব রেকর্ড। ভাবছেন এটা কোনো ব্যাপারই না। তাহলে আপনাকে একটু ধারণা দেই।এই ব্যক্তি এক দুই ঘণ্টা বা দিন নয়, টানা ১০ দিন খাবার ও পানি ছাড়াই সমাধি খ্যাত কফিনের ভেতর বেঁচে ছিলেন। যিনি জার্মানের নাগরিক জেডেনেক জহ্রাডকা।

৫০ বছর বয়সী জেডেনেক কফিনের ভেতরে কেবল একটি ভেন্টিলেশন পাইপ রেখেছিলেন। সেই পাইপের মাধ্যমে কফিনের ভেতর বাতাস চলাচল করত। শুধুমাত্র এ পাইপ দিয়েই বাইরের জগতের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন তিনি। কফিনের ভেতর বেশিরভাগ সময় ঘুমিয়ে এবং নানা বিষয়ে চিন্তা করেই কাটিয়েছেন। মাঝে মাঝে পাইপের মাধ্যমে বন্ধুদের সঙ্গে কথা বলতেন জেডেনেক।

জেডেনেক বলেন, কফিনের ভেতর থাকার সময় পৃথিবীতে ঘটে যাওয়া সমস্ত বিষয় নিয়ে চিন্তা ভাবনা করতেন। মানবজীবন নিরর্থক যা আমি বুঝতে পারি। তাই যেটুকু সময় আমরা পাই তা আনন্দ করে আর জীবনকে ভালোবেসে কাটানো উচিত। কফিনে থাকার সময় সবচেয়ে বেশি কষ্ট সহ্য করার বিষয়টি ছিল তীব্র তৃষ্ণা।

সমাধি থেকে বের হওয়ার পর একজন চিকিৎসক জেডেনেকের শরীর পরীক্ষা করেন। কফিনে থাকার সময় প্রায় নয় কেজি ওজন কমে যায়।এছাড়া তেমন কোনো শারীরিক জটিলতা দেখা যায়নি তার।

গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে সমাধিতে এক ব্যক্তি চারদিন জীবিত ছিলেন। সেই রেকর্ড ভেঙে ১০ দিন সমাধিতে জীবিত থেকে নতুনভাবে রেকর্ড লেখালেন জেডেনেক।

জেডেনেকের স্ত্রী আলেনা বলেন, স্বামীর এ ধরনের কাজের সঙ্গে একমত ছিলাম না। কিন্তু স্বামীর সফলতায় আমি আনন্দিত।

জেডেনেকের ঝুলিতে আরো বেশ কয়েকটি রেকর্ড জমা রয়েছে। বিশ্বের সবচেয়ে বড় (৫৫ সেন্টিমিটার) তলোয়ার গিলে ফেলার রেকর্ড তার ঝুলিতেই রয়েছে।

সূত্র: বিবিসিনিউজ

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ