কনে ছাড়াই ফিরে গেল বর, খাবার খেল এতিমরা

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৯ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২৬ ১৪২৬,   ১৫ শা'বান ১৪৪১

Akash

কনে ছাড়াই ফিরে গেল বর, খাবার খেল এতিমরা

চাঁদপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:০০ ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

ছবি: ডেইলি ‍বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি ‍বাংলাদেশ

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে বিয়ে করতে এসে কনে ছাড়াই ফিরে গিয়েছে বর। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার হাটিলা পূর্ব ইউপির টঙ্গীরপাড়-নোয়াপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

এদিন হাজীগঞ্জের ইউএনও বৈশাখী বড়ুয়ার হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেয়েছে নবম শ্রেণির এক ছাত্রী। এ ঘটনায় বর বিয়ে বাড়ি থেকে ফিরে যাওয়ার পর মেহমানদের জন্য রান্না করা খাবার স্থানীয় দুটি এতিমখানায় সরবরাহ করা হয়। 

বৃহস্পতিবার বাল্য বিয়ের খবর পেয়ে বরযাত্রী আসার আগেই বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত হয়ে কনের শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখতে চান ইউএনও বৈশাখী বড়ুয়া। কালক্ষেপণ করে প্রায় এক ঘন্টা পর কাগজপত্র না দিয়ে সম্প্রতি নেয়া নতুন একটি জন্মনিবন্ধন দেখান ছাত্রীর আত্মীয়রা।

এ প্রসঙ্গে হাজীগঞ্জের ইউএনও বৈশাখী বড়ুয়া বলেন, কনের প্রাপ্ত বয়সের প্রমাণ না দিতে পারায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে তার বাবাকে বাল্যবিয়ের দায়ে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া মেহমানদের জন্য রান্না করা খাবার স্থানীয় লাওকরা হযরত আমানত শাহ ও শাহেনশাহ (রহ:) হাফিজিয়া মাদরাসায় বিতরণ করা হয়েছে। 

পরে উপজেলা কার্যালয়ে এসে ছাত্রীর বাবা দোষ স্বীকার করে। পাশাপাশি ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত মেয়েকে বিয়ে না দেয়ার অঙ্গীকার করেও মুচলেকা দেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনাকালে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান জলিলুর রহমান মির্জা দুলাল, হাজীগঞ্জ থানার এসআই রমিজ উদ্দিনসহ অন্যান্য সরকারি কর্মকর্তা, জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর