Alexa কনফেডারেশন ফাইনালে চিলির প্রতিপক্ষ জার্মানি

ঢাকা, বুধবার   ১৩ নভেম্বর ২০১৯,   কার্তিক ২৮ ১৪২৬,   ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

Akash

কনফেডারেশন ফাইনালে চিলির প্রতিপক্ষ জার্মানি

 প্রকাশিত: ০৯:৩২ ৩০ জুন ২০১৭   আপডেট: ১৮:৫৯ ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯

কনফেডারেশন কাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালের আগে শক্তির বিবেচনায় সম্ভাবনার পাল্লাটা জার্মানির দিকে হেলে ছিল। মাঠের লড়াইয়েও তাই দেখা গেল- খেলা প্রথম শুরুর ৮ মিনিটের মাথায় মেক্সিকোর জালে দুইবার বল পাঠিয়ে দেন শালকের মিডফিল্ডার গোরেৎসকা। এরপর খেলা অনেকটাই তরুণেদের নিয়ে গড়া জার্মানির নিয়ান্ত্রণে চলে আসে। মেক্সিকোকে হজম করতে হয় আরও দুই গোল- তবে তারা পরিশোধ করেছে একটি। এরফলে তিনবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানি প্রথমবারের মতো উঠে গেলে কনফেডারেশন্স কাপের ফাইনালে।

তবে এই সেমিফাইনালে শক্তির বিবেচনায় স্পষ্ট পিছিয়ে থাকা মেক্সিকোর ফুটবলাররা লড়েছে তাদের সামর্থ উজার করে- এটা পরিষ্কার। এই সেমিফাইনালের অভিজ্ঞাতা তাদের পরবর্তীতে অনুপ্রেরণা যোগাবে- নিঃসন্দেহে। প্রবল প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে লড়া মেক্সিকানদের কয়েকটি নিশ্চিত গোল রুখে দেন জার্মান গোলকিপার। সেগুলো লক্ষভেদ করতে পারলে খেলার হতে পারতো অতিরিক্ত সময়ে গড়াতো বা চূড়ান্ত ব্যবধান অন্তত ৪-১ হতো না। বৃহস্পতিবার সোচিতে দ্বিতীয় সেমি-ফাইনালে লিওন গোরেৎসকার জোড়া গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধে জার্মানির তৃতীয় গোলটি করেন টিমো ভেরনার। শেষদিকে মেক্সিকান মার্কো ফাবিয়ান একটি গোল শোধ করলেও খানিক পরেই ব্যবধান আগের অবস্থায় নিয়ে যান জার্মানির আমিন ইয়োনেস।

আগামী রবিবার বিশ্বকাপের ‘মহড়ার’ ফাইনালে চিলির বিপক্ষে খেলবে ইওয়াখিম লুভের তারুণ্য নির্ভর জার্মানি। প্রথম সেমি-ফাইনালে ইউরোপ চ্যাম্পিয়ন পর্তুগালকে হারিয়ে ফাইনালে ওঠে কোপা আমেরিকায় টানা দুবারের শিরোপাজয়ী চিলিয়ানরা। ম্যাচের শুরুতেই দুই মিনিটের ব্যবধানে দুবার বল জালে পাঠিয়ে দলকে শক্ত অবস্থানে নিয়ে যান গোরেৎসকা। ষষ্ঠ মিনিটে ডি-বক্সের বাইরে থেকে নিচু শটে লক্ষ্যভেদের দুই মিনিট পর ডান দিক থেকে কোনাকুনি শটে দ্বিতীয় গোলটি করেন শালকের এই মিডফিল্ডার। অষ্টাদশ মিনিটে ব্যবধান আরও বাড়িয়ে সব হিসেব শেষ করে দিতে পারতেন টিমো ভেরনার। কিন্তু দারুণ দক্ষতায় সে যাত্রায় দলকে বাঁচান চিলির গোলরক্ষক গিলের্মো ওচোয়া।

৩৬তম মিনিটে ব্যবধান কমানোর সুযোগ নষ্ট হয় মেক্সিকোর; হাভিয়ের এরনান্দেসের শট একটুর জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। এরপর ৫৯তম মিনিটে ব্যবধান আরও বাড়িয়ে জয় প্রায় নিশ্চিত করে ফেলেন ভেরনার। বাঁ-দিক দিয়ে বল পায়ে ডি-বক্সে ঢুকে পড়া ইয়োনাস হেক্টরকে ঠেকাতে এগিয়ে যান ওচোয়া। সুযোগ বুঝে ডান দিকে বল বাড়ান হেক্টর, ফাঁকায় দাঁড়ানো লাইপজিগের ফরোয়ার্ড ভেরনার অনায়াসে লক্ষ্যভেদ করেন। ৮৯তম মিনিটে প্রায় ৩৫ গজ দূর থেকে আচমকা বিদ্যুৎ গতির বাঁকানো শটে ব্যবধান কমান মার্কো ফাবিয়ান। জার্মান গোলরক্ষক আসলে বিষয়টি বুঝে প্রস্তুত হবার আগেই বলটি জালে জড়িয়ে যায়। তবে ঠিক পরের মিনিটেই জার্মানির বদলি ফরোয়ার্ড আমিন ইয়োনেস ব্যবধান গোল করলে ব্যবধান ৪-১ এ দাঁড়ায়। এরপর মেক্সিকানরা মরিয়া কয়েকটি চেষ্টা চালালেও জার্মানদের কাছে তা পাত্তা পায়নি।