.ঢাকা, সোমবার   ২২ এপ্রিল ২০১৯,   বৈশাখ ৮ ১৪২৬,   ১৬ শা'বান ১৪৪০

কক্সবাজার থেকে যুব এশিয়া কাপ ঢাকায় স্থানান্তর

 প্রকাশিত: ১৩:৪৭ ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৬:৫২ ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

যুব এশিয়া কাপ ২০১৮ এর স্বাগতিক বাংলাদেশ। বিশ্বের সবচেয়ে দীর্ঘ সমুদ্র সৈকত বেস্টিত কক্সবাজারে কিছু ম্যাচ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) কক্সবাজারে টুর্নামেন্ট আয়োজনের সিদ্ধান্ত থেকে সরে দাঁড়িয়েছে । কক্সবাজারের ম্যাচগুলো এখন ঢাকায় আয়োজন করা হবে বলে জানান বিসিবির কর্মকর্তা ও সাবেক অধিনায়ক খালেদ মাহমুদ সুজন।

২৭ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হওয়া এবারের যুব এশিয়া কাপের ভেন্যু হিসেবে প্রথমে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারকে চূড়ান্ত করা হয়। কিন্তু কক্সবাজারের ম্যাচগুলো সরিয়ে ঢাকায় আনা হচ্ছে। স্বাগতিক বাংলাদেশের সঙ্গে এই টুর্নামেন্টে অংশ নেবে ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, আফগানিস্তান, নেপাল, হংকং ও সংযুক্ত আরব আমিরাত।

বিসিবির গেম ডেভেলপমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান সুজন বলেছেন, ‘যুব এশিয়া কাপ আয়োজনে আমরা পুরোপুরি প্রস্তুত। ভেন্যু পরিবর্তনের কারণ হিসেবে সাবেক এই অধিনায়ক বলেন, ‘বৃষ্টির জন্য সমস্যা হতে পারে ভেবে আমরা কক্সবাজার থেকে ভেন্যু ঢাকায় বদল করেছি। আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে জুনিয়রদের খেলার মাঠে আনা। কেননা আমাদের ভবিষ্যৎ জাতীয় দলের ক্রিকেটার লুকিয়ে আছে জুনিয়রদের মধ্যে।’  

যুব এশিয়া কাপকে সামনে রেখে চট্টগ্রামে যুব দলের ক্যাম্প চলছে। ১৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সেখানেই ক্যাম্প চলার কথা। নতুন কোচ শ্রীলঙ্কার নাভিদ নওয়াজের তত্ত্বাবধানে ঘোষিত ২৩ জনের দল নিয়ে এশিয়া কাপের প্রস্তুতি নিচ্ছে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। 

এশিয়া কাপে দলের সম্ভাবনা নিয়ে সুজন বলেছেন, ‘আসলে লক্ষ্য কী সেটা এখন বলা কঠিন। এশিয়া কাপের মাধ্যমে আমরা বুঝতে পারব আমাদের দুর্বলতা কিংবা সবলতা কোথায়। এরপর বিশ্বকাপের জন্য পরিকল্পনা গ্রহণ করা হবে। এই দলে দুই-তিন জন বাদে সবাই নতুন ক্রিকেটার। যারা অনূর্ধ্ব-১৭ খেলেছে। হোম কন্ডিশন সম্বন্ধে ছেলেরা জানে। তারা যদি নিজেরা স্বাভাবিক খেলা খেলতে পারে, তাহলে ফাইনাল খেলা তাদের জন্য কঠিন হওয়ার কথা নয়।’ 

গত যুব এশিয়া কাপ হয়েছিল মালয়েশিয়ায়। বাংলাদেশ প্রথম পর্বে তিন ম্যাচ জিতে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে সেমিফাইনাল খেলে। সেখানে বৃষ্টি আইনে পাকিস্তানের কাছে ২ রানে হেরে বিদায় নিতে হয়েছিল বাংলাদেশকে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস/আরআই