Alexa গোলমরিচের এত গুণ! জানলে খাবারের তালিকা থেকে বাদই দিতেন না

ঢাকা, বুধবার   ২০ নভেম্বর ২০১৯,   অগ্রহায়ণ ৫ ১৪২৬,   ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

Akash

গোলমরিচের এত গুণ! জানলে খাবারের তালিকা থেকে বাদই দিতেন না

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১২:০৩ ২১ অক্টোবর ২০১৯   আপডেট: ১২:৫৩ ২১ অক্টোবর ২০১৯

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

অনেকেই খাবারের মধ্যে গোলমরিচ ব্যবহার করতে পছন্দ করেন না। কিন্তু জানেন কি,  এর রয়েছে অনেক ঔষধি গুণ। তাই সুস্থ থাকতে চাইলে আপনার প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় গোলমরিচ যোগ করতে ভুল করবেন না।  

শরীর ফিট রাখতে গোলমরিচ বেশ কার্যকর। বিশেষজ্ঞরা বলেন, রান্নায় গোটা গোলমরিচ ব্যবহার করাই ভালো। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক গোলমরিচের গুণাগুণ সম্পর্কে-

দৃষ্টিশক্তি বাড়ায়
এক গ্লাস দুধের সঙ্গে এক চা চামচ গোলমরিচ গুঁড়া ও এক চা চামচ মধু মিশিয়ে নিন। প্রতিদিন সকালে এটি খাবেন। এতে আপনার দৃষ্টিশক্তি ভালো হবে।

বদহজম সমস্যা দূর করতে
বদহজমের সমস্যা হচ্ছে? কোনো চিন্তা নেই। কয়েকটা গোলমরিচ চিবিয়ে অথবা পানি দিয়ে খেয়ে নিন। দেখবেন বদহজম সমস্যা দূর হয়ে যাবে।

ওজন হ্রাস করে
যেকোনো ধরনের গরম মশলা ওজন হ্রাস করে। যদি অতিরিক্ত ওজন হ্রাস করতে চান, তবে প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় গরম মশলা যোগ করুন।

কফের চিকিৎসায় গোলমরিচ
একটি বাটিতে কিছু গোলমরিচ, জিরা ও বিট লবণ মিশিয়ে মুখে রাখুন। এটি খুশখুশে কাশি ও কফের চিকিৎসায় বেশ কার্যকর।

জ্বর থেকে পরিত্রাণ পেতে
একটি বাটিতে কিছু গোলমরিচ ও এক চা-চামচ চিনি নিন। সঙ্গে পানি যোগ করে খান। মিশ্রণটি আপনার জ্বর দূর করবে।

ঠাণ্ডাজনিত সমস্যা থেকে মুক্তি
ঘরে বসেই দূর করুন ঠাণ্ডার সমস্যা। এক গ্লাস দুধের সঙ্গে কিছু গোলমরিচ ও জাফরান মিশিয়ে খান। এটি ইনফেকশনের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে এবং ঠাণ্ডাজনিত সব সমস্যা দূর করে।

দাঁতের চিকিৎসায় গোলমরিচ
সকল ধরনের দাঁতের চিকিৎসায় গোলমরিচ বেশ কার্যকর। গোলমরিচ গুঁড়া করে দাঁতের মাড়ির ওপর কিছুক্ষণ রাখুন। এটি দাঁতের সমস্যা এবং নিঃশ্বাসে দুর্গন্ধ দূর করবে।

খাওয়ার রুচি বাড়াতে
গোলমরিচের গুঁড়া আপনার খাওয়ার রুচি বাড়াবে। এক কাপ ঘন দুধের সঙ্গে কয়েকটা গোলমরিচ মিশিয়ে নিন। সপ্তাহে এটি দুবার করে খান। এটি খাওয়ার রুচি বাড়াতে সাহায্য করে।

ঠাণ্ডা এলার্জি দূর করতে
একটি পাত্রে পানি ফুটিয়ে তাতে কয়েকটা কালো ও সাদা গোলমরিচ, সামান্য চিনি ও আদা মেশান। গরম গরম খেলে ঠাণ্ডা সমস্যা দূর হবে। যদি না হয় তবে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএ