ওজন কমাবে ওয়াটার থেরাপি!

ঢাকা, রোববার   ১৯ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ৫ ১৪২৬,   ১৪ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

ওজন কমাবে ওয়াটার থেরাপি!

 প্রকাশিত: ১০:৩৬ ৮ জুন ২০১৮  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

ওজন কমানোর জন্যে আমরা এই চার্ট, সেই ব্যায়াম, হাঁটা অনেক কিছু করে থাকি। কেউ খুব অল্প সময়ে ওজন কমাতে পারে, কারো ওজন একটু বেশি টাইম নিয়ে কমে। কারো কমেই না, সে হতাশ হয়ে ওজন কমানোর ওষুধের দিকে হাত বাড়ায়। ওজন কমানোর সবচেয়ে কার্যকরী উপায় ‘‘ওয়াটার থেরাপী।’’ ওয়াটার থেরাপিতে মাসে ৫/৬ কেজি ওজন কমানো যায়। এমনকি ওয়াটার থেরাপিতে ওজন কমানোর পাশাপাশি চুল মসৃণ, সিল্কি হয়, চুল ঝরা কমে এবং ত্বকের ব্রণ, বলিরেখা দূর হয়, ত্বক দুই থেকে তিন টোন উজ্জ্বল হয়। অনেকেই ওয়াটার থেরাপি নিয়ে জানে না। জেনে নেয়া যাক ওয়াটার থেরাপিতে কখন কি পরিমান পানি খেতে হবে:

১. সকালে ঘুম থেকে উঠে ৫০০ মিলিলিটার কুসুম গরম পানিতে এক চিমটি লবণ মিশিয়ে পান করতে হবে, কিন্তু কারো যদি উচ্চ রক্তচাপ থাকে, তবে সে লবণ বাদ দিয়ে শুধু কুসুম গরম পানি পান করবেন এবং পরবর্তী ৪৫ মিনিট কোনো কিছুই খাবেন না।

২. দুপুর ১২টার দিকে ৫০০ মিলিলিটার স্বাভাবিক তাপমাত্রার পানি পান করবেন।

৩. দুপুর ৩টায় আবার ৫০০ মিলিলিটার স্বাভাবিক তাপমাত্রার পানি পান করবেন।

৪. সন্ধ্যা ৬টায় ৫০০ মিলিলিটার কুসুম গরম পানি পান করবেন।

৫. রাত ৯টায় ৫০০ মিলিলিটার কুসুম গরম পানিতে এক চিমটি লবণ মিশিয়ে পান করবেন। কারো উচ্চ রক্তচাপ থাকলে সে লবণ বাদ দিয়ে শুধু কুসুম গরম পানি পান করবেন।

ধারাবাহিকভাবে এটি নিয়মিত অনুসরণ করলে উপকার পাওয়া যায়। সব খাবারই খাওয়া যাবে ওয়াটার থেরাপির পাশাপাশি।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআরকে

Best Electronics