ওজন কমাতে সকালের নাস্তা বাদ দিয়ে ডেকে আনছেন বিপদ! 

ঢাকা, রোববার   ০৫ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২২ ১৪২৬,   ১১ শা'বান ১৪৪১

Akash

ওজন কমাতে সকালের নাস্তা বাদ দিয়ে ডেকে আনছেন বিপদ! 

কানিছ সুলতানা কেয়া ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:০০ ১২ মার্চ ২০২০   আপডেট: ২১:১৮ ১২ মার্চ ২০২০

সকালের স্বাস্থ্যসম্মত খাবার আপনাকে সারাদিনের কাজের জন্য চাঙ্গা রাখবে-ছবি: সংগৃহীত

সকালের স্বাস্থ্যসম্মত খাবার আপনাকে সারাদিনের কাজের জন্য চাঙ্গা রাখবে-ছবি: সংগৃহীত

বর্তমানে ওজন কমানো যেন এক ট্রেন্ড হয়ে দাঁড়িয়েছে। সারাবিশ্বেই এখন স্বাস্থ্য সচেতনরা ঝুঁকছেন ওজন কমানোর নানা পদ্ধতিতে। আর ওজন কমাতে প্রথমেই বাদ দেন খাবার।

হ্যাঁ এটি ঠিক যে, ওজন কমাতে খাবার নিয়ন্ত্রণে আনতেই হবে। তবে সকালের খাবার যারা বাদ দিচ্ছেন তারা অজান্তেই ডেকে আনছেন বিপদ!

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে সকালের খাবার একজন ব্যক্তির জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। কারণ এটি আপনার সারাদিনের কর্মক্ষমতা দেবে। তবে এসময় বেশি ক্যালোরি সমৃদ্ধ খাবার এড়িয়ে চলতে পারেন।

সকালের নাস্তা বাদ দিয়ে বাড়িয়ে দিচ্ছেন নানা স্বাস্থ্য ঝুঁকি। চলুন তবে জেনে নিই সেগুলো কী কী-

হৃদরোগের ঝুঁকি বাড়ে

গবেষণায় দেখা যায় যে প্রাতঃরাশ বা সকালের খাবার এড়িয়ে যাওয়া লোকেরা হৃদরোগের ঝুঁকিতে বেশি থাকে। দীর্ঘ সময়ের জন্য উপবাস থাকা শরীরের জন্য আরও চাপ বাড়িয়ে দেয়। শরীরকে কাজ করতে যে অতিরিক্ত শক্তি যোগাতে হয়। তা ব্যাহত হয়। এতে আপনার হার্টের ওপর চাপ পড়ে।  ফলে হৃদরোগের ঝুঁকি বাড়িয়ে তোলে।

ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বাড়ে

ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয় দ্বিগুণ। প্রাতঃরাশ এড়িয়ে যাওয়া আপনাকে লাঞ্চের সময় বেশি খেতে বাধ্য করে। দীর্ঘ সময় ধরে উপবাস করা এবং তারপরে অতিরিক্ত খাওয়ার কারণে রক্তে শর্করার মাত্রা বেড়ে যায়। এই অনিয়মে আপনার ইনসুলিনের ঘাটতি হতে পারে। ফলে পরবর্তী পর্যায়ে ডায়াবেটিসে পরিণত হতে পারে।

ওজন বাড়িয়ে দেয়

ওজন কমানোর আশায় প্রাতঃরাশ না করা আসলে শরীরে বিপরীত প্রভাব ফেলতে পারে। এতে করে ওজন কমার পরিবর্তে ওজন বেড়ে যেতে পারে। গবেষণা মতে, সকালের খাবার বাদ দেয়ার ফলে আপনি দুপুরে বেশি খাবার গ্রহণ করছেন। আর অনেকক্ষণ উপবাস থেকে বেশি খাবার গ্রহনের ফলে ওজন বেড়ে যায়।

মনোযোগ হারাতে পারেন

সকালের খাবার না খাওয়া শরীরের সঙ্গে সঙ্গে মনের ওপরও প্রভাব ফেলে। পেটে ক্ষুধা নিয়ে কোনো কাজ করাই সম্ভব না। এতে করে আপনার মনোযোগ কমে যেতে পারে।

তাই সকালের ব্যায়ামের আধাঘণ্টা পর খাবার সেরে নিন। এসময় পরিমাণে অল্প এবং বেশি পুষ্টি সমৃদ্ধ খাবার খান। বেশি মাত্রার ক্যালোরি, ফ্যাট জাতীয় খাবার এসময় এড়িয়ে চলুন।

সকালের স্বাস্থ্যসম্মত খাবার আপনাকে সারাদিনের কাজের জন্য চাঙ্গা রাখবে। আর দূরে রাখবে নানা রোগব্যাধি থেকে।

সূত্র:টাইমসঅবইন্ডিয়া 

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএজে