Alexa এমপি হতে মা-মেয়েসহ ৬ নেত্রীর দৌড়ঝাঁপ

ঢাকা, রোববার   ২১ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ৬ ১৪২৬,   ১৭ জ্বিলকদ ১৪৪০

এমপি হতে মা-মেয়েসহ ৬ নেত্রীর দৌড়ঝাঁপ

নাটোর প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ১৫:০১ ১০ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ১৫:০১ ১০ জানুয়ারি ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

 

নাটোরে সংরক্ষিত আসনে এমপি হওয়ার জন্য মা-মেয়েসহ আওয়ামী লীগের হাফ ডজন নারী নেত্রী দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন। সংসদ নির্বাচন শেষ হতেই তদবিরের জন্য প্রার্থীদের কেউ কেউ ঢাকায় গিয়ে লবিং শুরু করছেন।

সাধারণ আসনের নির্বাচনের পর শপথ গ্রহণ ও মন্ত্রী পরিষদ গঠনের পর নাটোরের নারী নেত্রীদের অনেকেই ঢাকামুখী হয়েছেন। তারা সংরক্ষিত আসনের এমপি হওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে তাদের ত্যাগের রাজনীতি সম্পর্কে তুলে ধরে লবিং-তদবির শুরু করেছেন। তবে দলীয় নেতা কর্মীদের দাবি, শুরুতে মা-মেয়েসহ ৭ জনের নাম শোনা গেলেও নারী আসনে সম্ভাব্য প্রার্থীর সংখ্যা আরো বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এবার সংরক্ষিত আসনের এমপি হওয়ার দৌড়ে রয়েছেন নাটোর-১ আসনে একাদশ নির্বাচনের মনোনয়ন প্রত্যাশী কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা উপ-কমিটির সদস্য সিলভিয়া পারভিন লেনী ও তার মা লালপুর উপজেলার গোপালপুর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি রোখসানা মোর্ত্তজা লিলি। লিলি গত পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীয় মেয়র পদের প্রার্থী ছিলেন। তবে সামান্য ভোটের ব্যবধানে তিনি পরাজিত হন। স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা কর্মীদের দাবি, দলের মধ্যেকার অভ্যন্তরীণ ও উপদলীয় কোন্দলের কারণে পরাজিত হয়েছেন তিনি।

সংরক্ষিত আসনে অন্য প্রার্থীদের মধ্যে নাটোর জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ সভাপতি রত্না আহমেদ একজন ভালো প্রার্থী। তিনি সামাজিক সাংস্কৃতিকসহ বেশ কয়েকটি সংগঠনের সঙ্গে জড়িত।

নাটোর সদর উপজেলার সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রত্না আহমেদ বলেন, ২০১৩ সালে হেফজত ইসলামের ১৩ দফার প্রতিবাদে নাটোরে যে সমাবেশ হয়, সেখানে তার নেতৃত্বে কয়েক হাজার নারী অংশ নেয়। তিনি ছাত্রজীবন থেকে আওয়ামী লীগের সঙ্গে সক্রিয় ছিলেন। বঙ্গবন্ধু তার জীবদ্দশায় বিরোধীদলের নেতা হিসেবে যতবার নাটোরে এসেছেন ততবারই রত্না আহমেদের শ্বশুরদের গড়া নাটোর বোডিং নামে আবাসিক হোটেলে অবস্থান করে দলীয় সভা-সমাবেশ করেছেন।

এছাড়া মনোনয়ন চাইবেন নাটোর-৪ আসনের বর্তমান নির্বাচিতসহ ৫ বারের এমপি আব্দুল কুদ্দসের কন্যা ও যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি কুহেলী কুদ্দুস মুক্তি। মুক্তি একাদশ সংসদ নির্বাচনে নাটোর-৪ আসন থেকে বাবার পাশাপাশি দলের কাছে প্রার্থীতার জন্য আবেদন করেছিলেন।

সংরক্ষিত আসনে অরো যারা মনোনয়নের জন্য মাঠে নেমেছেন তাদের মধ্যে হলেন- আওয়ামী লীগের প্রয়াত নেতা নাটোর-১ আসনের সাবেক এমপি মমতাজ উদ্দিনের স্ত্রী ও সাবেক এমপি শেফালী মমতাজ। নাটোরের অবিসংবাদিত নেতা শংকর গোবিন্দ চৌধুরী মেয়ে নাটোর পৌরসভার মেয়র উমা চৌধুরী জলি মনোনয়ন চাইতে পারেন।

দশম সংসদের মত একাদশ নির্বাচনেও নাটোরের চারটি আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা বিপুল ভোটের ব্যবধানে নির্বাচিত হয়েছেন। সংরক্ষিত আসনে মনোনয়নের জন্য তদবিরে নেমেছেন তাদের মধ্যে জেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আনজুম আরা পপি। দশম সংসদে সংরক্ষিত নারী আসনে নাটোরের কোন এমপি ছিলনা। তাই এবার সংরক্ষিত নারী আসনের জন্য নাটোর থেকে এমপি করার দাবি করেছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীরা।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম