.ঢাকা, শুক্রবার   ১৯ এপ্রিল ২০১৯,   বৈশাখ ৫ ১৪২৬,   ১৩ শা'বান ১৪৪০

‘৮ নভেম্বর তফসিল ঘোষণায় আওয়ামী লীগের সমর্থন’

 প্রকাশিত: ১৯:৪৬ ৭ নভেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৯:৪৬ ৭ নভেম্বর ২০১৮

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

আগামীকাল বৃহস্পতিবার একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সমর্থন রয়েছে।

বুধবার নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে আওয়ামী লীগের সংলাপের পর এক ব্রিফিংয়ে প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম এ কথা বলেন।

এইচ টি ইমাম বলেন, ৮ নভেম্বর জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার কথা জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা। আমরা মনে করি, নির্বাচন কমিশন একটি স্বাধীন ও নিরপেক্ষ প্রতিষ্ঠান। তারা যেভাবে নির্বাচন করতে চায়, যেদিন নির্বাচন করতে চায়, তারা যেদিন তফসিল ঘোষণা করতে চায়; সরকারের দায়িত্ব তাদের সহায়তা করা। 

নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের বিষয়ে জানতে চাইলে এইচ টি ইমাম বলেন, এ বিষয়ে আমাদের কোনো মতামত নেই। নির্বাচন কমিশন যদি সেনা মোতায়েন করতে চায়, তাহলে সরকার সহায়তা করবে। আগের সংসদ নির্বাচনগুলোতে সেনাবাহিনী স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে কাজ করেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন চাইলে সেভাবেই সেনা মোতায়েন করতে পারে। এটা তাদের আইনেই আছে।

জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) ব্যবহার প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর এই উপদেষ্টা বলেন, এ বিষয়েও আমাদের কোনো বক্তব্য নেই।

নির্বাচন কমিশন বলেছে, তারা সীমিত কেন্দ্রে ইভিএম ব্যবহার করতে চায়। এ বিষয়ে জানতে চাইলে এইচ টি ইমাম বলেন, কমিশন সীমিত আসনে ইভিএম ব্যবহার করতে চাইলে তাতে আমাদের সমর্থন আছে। আমরা আরো বলেছি, ইভিএম ব্যবহারের আগে যেন পোলিং কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ দেয়া হয়।

নির্বাচনে পর্যবেক্ষকদের অংশগ্রহণ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের মতামত জানতে চাইলে তিনি বলেন, ইসি চাইলে দেশি-বিদেশি পর্যবেক্ষক হিসেবে নিবন্ধন দিতে পারে। তবে নিবন্ধন ছাড়া যেন কেউ পর্যবেক্ষক হিসেবে অংশ নিতে না পারেন, সে বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে হবে। কেউ ট্যুরিস্ট ভিসায় এসে যেন নির্বাচন পর্যবেক্ষক হিসেবে কাজ না করতে পারে, সে ব্যবস্থাও ইসিকে নিতে হবে।

ইসির সঙ্গে অন্যান্য রাজনৈতিক দল ও জোটের বৈঠকের প্রসঙ্গে এইচ টি ইমাম বলেন, এর আগে ইসির সঙ্গে জাতীয় পার্টি, যুক্তফ্রন্টসহ বেশকিছু দলের বৈঠক হয়েছে। তারা সবাই শালীনভাবে কথা বলেছে। কিন্তু ঐক্যফ্রন্ট নামে একটি জোট তর্জনী উঁচিয়ে কমিশনকে ভয়ভীতি দেখিয়েছে। আমরা কমিশনকে বলেছি, ভয় পাবেন না। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে এসব পরিস্থিতির মোকাবিল করব।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআরকে