Alexa এক সঙ্গে বিষপানে প্রেমিক যুগলের আত্মহত্যা

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২০ আগস্ট ২০১৯,   ভাদ্র ৫ ১৪২৬,   ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

Akash

এক সঙ্গে বিষপানে প্রেমিক যুগলের আত্মহত্যা

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০০:৪২ ১৫ আগস্ট ২০১৯  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

টাঙ্গাইলের সখীপুরে এক সঙ্গে বিষপান করে ২৩ ঘণ্টার ব্যবধানে প্রেমিক-প্রেমিকার মৃত্যু হয়েছে। বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় প্রেমিক ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যায়।

এর আগে মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টায় টাঙ্গাইল জেনারেল কলেজ হাসপাতালে মারা যায় প্রেমিকা। 

নিহতরা হলো- প্রেমিক ইব্রাহিম মিয়া ইব্রাহিম ইছাদিঘী গ্রামের বাঘবেড় পাড়ার মজনু মিয়ার ছেলে এবং প্রেমিকা মেঘনা আক্তার ওই গ্রামের ফজলুল হকের মেয়ে। তারা দুইজনেই উপজেলা ইছাদিঘী দাখিল মাদরাসার ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল। 

পারিবারিক সূত্র বলছে, একই শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানে একই শ্রেণিতে থাকায় দুইজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। মাস খানেক আগে দুই পরিবারের মধ্যে বিষয়টি জানাজানি হয়। দুই পরিবার মেনে নিলেও বাল্যবিয়ের কারণে প্রশাসনের চাপে ছেলে-মেয়ের ইচ্ছা পূরণ হয়নি।

পরে মেয়েটি ঈদের দিন রাতে বাড়ির কাউকে না জানিয়ে ছেলের বাড়িতে গিয়ে উঠে। ছেলের পরিবার থেকে মেয়েটিকে মেনে না নেয়ায় ঈদের পরদিন সকালে ছেলের বাড়িতে উভয়েই বিষপান করে। ছেলের বাড়ির লোকজন দুইজনকেই সখীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে তাদের অবস্থার অবনতি হওয়ায় টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

পরে ছেলের স্বজনরা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও মেয়ের স্বজনরা টাঙ্গাইল জেনারেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। মেয়েটিকে ওই হাসপাতালে নেয়ার পর মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। এর ২৩ ঘণ্টা পর বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় ছেলেটি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।

স্থানীয় ইউপি সদস্য আবুল কালাম আজাদ বলেন, দুই পরিবারের সঙ্গে কথা বলে মেয়ের কবরের পাশে ছেলেকেও কবর দেয়ার ব্যবস্থা করা হবে।

সখীপুর থানার ওসি আমির হোসেন বলেন, এ ঘটনায় থানায় অমৃত্যু মামলা হয়েছে। প্রেমঘটিত কারণে এ ঘটনা ঘটেছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম

Best Electronics
Best Electronics