একাধিক মনোনয়নপ্রত্যাশী আওয়ামী লীগে

ঢাকা, শুক্রবার   ২১ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ৭ ১৪২৬,   ১৬ শাওয়াল ১৪৪০

নড়াইল-১

একাধিক মনোনয়নপ্রত্যাশী আওয়ামী লীগে

 প্রকাশিত: ১৯:৪৪ ১৯ জুলাই ২০১৮   আপডেট: ১৯:৪৪ ১৯ জুলাই ২০১৮

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

আওয়ামী লীগের দুর্গ খ্যাত নড়াইল-১ (কালিয়া-সদরের আংশিক) আসনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে দলীয় মনোনয়ন পেতে কাজ করে চলেছেন মনোনয়নপ্রত্যাশীরা।

বিশেষ করে আওয়ামী লীগের একাধিক প্রার্থী মাঠে রয়েছেন। অন্যান্য দলে একক প্রার্থীর আনাগোনা দেখা যাচ্ছে।তবে তাদের মাঠের তৎপরতা তেমন জোরালো নয়।   

এ আসনে আওয়ামী লীগের দু’টি গ্রুপের মধ্যে বিরোধ জোরালো হয়ে উঠেছে। এ বিরোধ না মিটলে সংসদ নির্বাচনে তার খেসারত দিতে হবে বলে মনে করছেন অনেকে। দলের কয়েকজন নেতা মনোনয়নের জন্য দৌড়ঝাঁপ চালিয়ে যাচ্ছেন। এদের মধ্যে রয়েছেন বর্তমান এমপি কবিরুল হক মুক্তি, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন খান নিলু, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মোল্যা ইমদাদুল হক, যুবলীগের কেন্দ্রীয় সহ-সম্পাদক কাজী সারোয়ার হোসেন, নড়াগাতী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মফিজুল হক, সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি ফজিলাতুন নেছা বাপ্পি ও আওয়ামী লীগ নেতা লে. কমান্ডার ওমর আলী (অব.)।

এছাড়া জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের তালিকায় রয়েছেন জেলা বিএনপি’র সভাপতি বিশ্বাস জাহাঙ্গীর আলম ও খুলনা মহানগর বিএনপি’র সিনিয়র সহ-সভাপতি সাহারুজ্জামান মর্তুজা।

জাতীয় পার্টি (এরশাদ) প্রার্থী হিসেবে জেলা জাপার সাধারণ সম্পাদক মো. মিল্টন মোল্যা, জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি (আম্বিয়া-প্রধান) শরীফ নরুল আম্বিয়া, ওয়ার্কার্স পার্টির সাবেক কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক কমরেড বিমল বিশ্বাস, কালিয়া উপজেলা জাসদের (ইনু) সভাপতি আকতার হোসেন রাঙ্গা, ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী হিসেবে জেলা শ্রমিক আন্দোলন সভাপতি হাফেজ খবির উদ্দিন দলীয় মনোনয়ন নিয়ে নির্বাচন করবেন বলে শোনা যাচ্ছে।

বর্তমান এমপি কবিরুল হক মুক্তি নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জয়লাভ করেন। দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। নড়াইল জেলায় আওয়ামী লীগের রাজনীতি অনেকটা তিনিই নিয়ন্ত্রণ করেন। প্রভাবশালী এই নেতা অনেকটা বটগাছের দাঁড়িয়ে আছেন নেতা-কর্মীদের ওপর। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কবিরুল হক মুক্তি মনোনয়ন পাচ্ছেন বলে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে।

নিজাম উদ্দিন খান নিলুর সঙ্গে কাজ করছেন নড়াইল-১ আসনের একাধিক ত্যাগী আওয়ামী লীগ নেতা। এই আসনে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিয়েছেন নিজাম উদ্দিন খান নিলু। তিনি নির্বাচনী এলাকায় একাধিক সভা-সমাবেশ করে চলেছেন। নেত্রী মনোনয়ন দিলে তিনি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবেন বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

কাজী সারোয়ার হোসেন, দীর্ঘদিন ধরে নির্বাচনী এলাকায় কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। ঢাকায় অবস্থান করলেও মাঝে মধ্যে এলাকায় এসে তৃণমুল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময়, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও অসহায়দের আর্থিক সহযোগিতা, দলের সাংগঠনিক অবস্থা জোরদার করতে বিভিন্ন দিক-নির্দেশনা দিয়ে যাচ্ছেন। কালিয়া ও নড়াগাতী এলাকায় আওয়ামী লীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দলে তিনি বর্তমান এমপির প্রতিপক্ষ গ্রুপে রয়েছেন। তিনি মনোয়ন পেতে পারেন বলে আশাবাদী।

লে. কমান্ডার ওমর আলী (অব.) এলাকায় রাজনৈতিক, ধর্মীয় ও সামাজিক কর্মকাণ্ডে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন। তিনি দলীয়  প্রতীকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে জীবনের শেষদিন পর্যন্ত মানুষের সেবা করতে চান।

মফিজুল হক দলের সাংগঠনিক কর্মকাণ্ডে গতিশীলতা রাখতে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে যাচ্ছেন। স্থানীয় এমপির বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে নিয়ে তিনি অপর গ্রুপের নেতৃত্বে রয়েছেন। তিনিও দলীয় মনোনয়নের ব্যাপারে আশাবাদী।

এদিকে জেলা বিএনপির সভাপতি বিশ্বাস জাহাঙ্গীর আলম মনোনয়ন পেতে পারেন বলে শোনা যাচ্ছে। নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি মনোনয়ন পেলেও স্বতন্ত্র প্রার্থী কবিরুল হক মুক্তির কাছে পরাজিত হন। বিএনপিতে একাধিক মনোনয়নযোগ্য নেতা থাকলেও দলের বিপর্যয়ের কারণে তারা প্রার্থী হতে ইচ্ছাপোষণ করছেন না।

এছাড়া অন্যান্য দল একক প্রার্থী দেবে বলে দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে।

অবহেলিত এই জনপদের উন্নয়নে কাজ করবেন এমন প্রার্থীকেই যেন মনোনয়ন দেয়া হয় এমনটাই আশা করছেন এই আসনের ভোটাররা।

ডেইলি বাংলাদেশ/আজ