Alexa এএফএমসি-তে বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস উপলক্ষে র‌্যালি ও সেমিনার 

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৭ অক্টোবর ২০১৯,   কার্তিক ১ ১৪২৬,   ১৭ সফর ১৪৪১

Akash

এএফএমসি-তে বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস উপলক্ষে র‌্যালি ও সেমিনার 

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:৩২ ১০ অক্টোবর ২০১৯  

ডিজিএমএস মেজর জেনারেল মো. ফসিউর রহমান বৃহস্পতিবার এএফএমসি-তে ওয়ার্ল্ড মেন্টাল হেল্থ ডে উপলক্ষে ‘মানসিক স্বাস্থ্যের উন্নয়ন ও আত্মহত্যা প্রতিরোধ ’ শীর্ষক সেমিনারে বক্তব্য প্রদান করেন।- আইএসপিআর

ডিজিএমএস মেজর জেনারেল মো. ফসিউর রহমান বৃহস্পতিবার এএফএমসি-তে ওয়ার্ল্ড মেন্টাল হেল্থ ডে উপলক্ষে ‘মানসিক স্বাস্থ্যের উন্নয়ন ও আত্মহত্যা প্রতিরোধ ’ শীর্ষক সেমিনারে বক্তব্য প্রদান করেন।- আইএসপিআর

ঢাকা সেনানিবাসের আর্মড ফোর্সেস মেডিক্যাল কলেজে (এএফএমসি) ‘বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস ২০১৯’ উপলক্ষে র‌্যালি ও ‘মানসিক স্বাস্থ্যের উন্নয়ন ও আত্মহত্যা প্রতিরোধ’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সামরিক চিকিৎসা মহাপরিদফতরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. ফসিউর রহমান। 

সভাপতিত্ব করেন আর্মড ফোর্সেস মেডিকেল কলেজের কমান্ড্যান্ট মেজর জেনারেল মো. মোস্তাফিজুর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আর্মড ফোর্সেস এর কনসালটেন্ট ফিজিশিয়ান জেনারেল মেজর জেনারেল মো. আজিজুল ইসলাম এবং বিএসএমএমইউ এর শিশু-কিশোর মনোরোগ বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান ও বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর এমএসআই মল্লিক। 

বৃহস্পতিবার এই র‌্যালি ও সেমিনার হয় বলে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতর (আইএসপিআর) থেকে জানানো হয়।   

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, সামাজিক অস্থিরতা- বিশেষ করে সহিংসতা, হিংস্রতা, হানাহানি বন্ধ করে শান্তি ও শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠা করতে হবে। কারণ প্রতিটি সহিংসতা, হিংস্রতা মানসিক রোগকে ত্বরান্বিত ও গভীরতর করে। মানসিক রোগ বিশেষত আত্মহত্যার কারণ এবং এর প্রতিরোধে রোগীর চিকিৎসক, অভিভাবক ও নিকটাত্মীয় সবাইকে সক্রিয় অংশগ্রহণের আহ্বান জানান। তিনি মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ে এ ধরনের আয়োজনকে সাধুবাদ জানান। 

সেনাবাহিনীতে ভবিষ্যতেও এরূপ কর্মসূচি পালনের জন্য সবাইকে উৎসাহিত করেন তিনি।

এবারের বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবসের প্রতিপাদ্য- ‘মানসিক স্বাস্থ্যের উন্নয়ন ও আত্মহত্যা প্রতিরোধ’। প্রতিপাদ্য বিষয়ের উপর মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আজিজুল ইসলাম, অধ্যাপক ও উপদেষ্টা মনোরোগ বিশেষজ্ঞ। তিনি বর্তমান বিশ্বে মানসিক স্বাস্থ্যের প্রয়োজনীয়তা, আত্মহত্যা রোগ ও তার প্রতিরোধ সর্ম্পকে বক্তব্য প্রদান করেন। 

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি কনসালটেন্ট ফিজিশিয়ান জেনারেল, মেজর জেনারেল মো. আজিজুল ইসলাম তার বক্তব্যে ছাত্র ছাত্রীদের মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষার ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বলেন। 

এছাড়া, অভিভাবকদের এ সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধির বিষয়েও গুরুত্ব আরোপ করেন। প্রফেসর এম এস আই মল্লিক, স্কুল, কলেজ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মানসিক স্বাস্থ্য উন্নয়নের লক্ষ্যে সচেতনতা ও সাহায্য সেল গঠন করা যেতে পারে বলে অভিমত প্রকাশ করেন।

অনুষ্ঠানের সভাপতি এএফএমসি’র কমান্ড্যান্ট মেজর জেনারেল মো. মোস্তাফিজুর রহমান তার বক্তব্যে বলেন, আন্ডার গ্র্যাজুয়েট ও পোস্ট গ্র্যাজুয়েট মেডিকেল শিক্ষায় মানসিক স্বাস্থ্যকে গুরুত্ব দিয়ে চিকিৎসকদের মধ্যে এ সর্ম্পকিত ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গী গড়ে তুলতে হবে।

আলোচনা সভার আগে প্রধান অতিথি ও অন্যান্য অতিথিবৃন্দ বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন করেন এবং একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালিতে  অংশগ্রহণ করেন। এএফএমসি’র ডেপুটি কমান্ড্যান্ট ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাইদুর রহমান অনুষ্ঠানের স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মেজর জেনারেল সুসানে গীতি, সামরিক ও বেসামরিক চিকিৎসক, ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং এএফএমসি এর শিক্ষার্থীরা।

অনুষ্ঠানটি আয়োজনে সার্বিক সহায়তা করে ঢাকা সিএমএইচ এর মনোরোগ বিদ্যা বিভাগ। বৈজ্ঞানিক পার্টনার হিসেবে সহযোগিতা করেছে ইউনিমেড ইউনিহেলথ ফার্মাসিউটিক্যালস।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসআই