‘উচ্চশিক্ষার মান নিশ্চিতে তদারকি বৃদ্ধি করেছে ইউজিসি’ 
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=131548 LIMIT 1

ঢাকা, মঙ্গলবার   ১১ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২৭ ১৪২৭,   ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

‘উচ্চশিক্ষার মান নিশ্চিতে তদারকি বৃদ্ধি করেছে ইউজিসি’ 

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:৩৮ ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আপডেট: ১৮:৪০ ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ছবি- ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি- ডেইলি বাংলাদেশ

দেশের উচ্চশিক্ষার কাঙ্ক্ষিতমান নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)  তদারকি কার্যক্রম বৃদ্ধি করেছে বলে জানিয়েছেন ইউজিসি চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী শহীদুল্লাহ।

সোমবার ইউজিসি’র এসপিকিউ বিভাগ আয়োজিত পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে আইকিউএসি’র (ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসিউরেন্স সেল) বর্তমান অবস্থা এবং করণীয়  বিষয়ক এক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। 

ইউজিসি চেয়ারম্যান বলেন, গুণগত শিক্ষা নির্ভর করে মানসম্মত শিক্ষকদের ওপর। শিক্ষার্থীদের কল্যাণ ও ভবিষ্যতের জন্য শিক্ষকদের জ্ঞান এবং দক্ষতা প্রয়োজনের নিরিখে বৃদ্ধি করা প্রয়োজন। শিক্ষকরা যদি আগামীর জন্য নিজেদের তৈরি না করে তাহলে তারা অসুবিধায় পড়বে। নিজেদের বিপদ নিজেরাই ডেকে আনবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদেরকে শিক্ষার মান বৃদ্ধির নামে জিপিএ-৪ বা সর্বোচ্চ জিপিএ’র লাগাম টেনে ধরার পরামর্শ ইউজিসি চেয়ারম্যানের। তার মতে, আগে প্রতি বিভাগে ১ থেকে ২ জন  প্রথম শ্রেণি পেতো। বর্তমানে ৬০ এর অধিক জনকে প্রথম শ্রেণি দেয়া হচ্ছে। এতে মান বৃদ্ধি হচ্ছে না বরং শিক্ষার মান কমছে বলে তিনি মনে করেন।

প্রফেসর শহীদুল্লাহ আরো বলেন, আমাদের স্নাতকদের গুণগতমান ও দক্ষতার অভাব রয়েছে। অদক্ষ কর্মী নিয়োগে প্রতিষ্ঠানগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। ইউজিসি উচ্চশিক্ষার গুণগতমান নিশ্চিত করতে কাজ করে যাচ্ছে।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্যে ইউজিসি সদস্য অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আলমগীর বলেন, আইকিউএসি এদেশে মানসম্পন্ন উচ্চশিক্ষার সংস্কৃতি তৈরি করবে। এটি সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে মানসম্পন্ন শিক্ষা ও গবেষণার সংস্কৃতি চালু করবে এবং বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে আন্তর্জাতিক র‌্যাংকিংয়ে নিয়ে যেতে সহায়তা  করবে।

পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে কর্মক্ষমতা অনুযায়ী আগামীতে বার্ষিক বাজেট দেয়া হবে জানিয়ে তিনি বলেন, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের পঠন-পাঠন ও গবেষণা কার্যক্রমের উৎকর্ষ অনুযায়ী ভবিষ্যতে বাজেট প্রদান করা হবে। এ ছাড়া আইকিউএসি বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণা এবং শিক্ষার পরিবেশ উন্নত করবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন- ইউজিসির সদস্য প্রফেসর ড. মো. আখতার হোসেন, প্রফেসর ড. মো. সাজ্জাদ হোসেন, সচিব ড. মো. খালেদ, ইউজিসি’র বিভাগীয় প্রধানরা এবং বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের আইকিউএসি'র পরিচালক।

ডেইলি বাংলাদেশ/ডিএম/আরএইচ