উইন্ডোজ ১০ এর সেরা অ্যান্টিভাইরাস
SELECT bn_content_arch.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content_arch.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content_arch.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content_arch INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content_arch.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content_arch.ContentID WHERE bn_content_arch.Deletable=1 AND bn_content_arch.ShowContent=1 AND bn_content_arch.ContentID=25356 LIMIT 1

ঢাকা, শনিবার   ১৫ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ৩১ ১৪২৭,   ২৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

উইন্ডোজ ১০ এর সেরা অ্যান্টিভাইরাস

 প্রকাশিত: ০৫:০৬ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

বাজারে প্রচলতি অ্যান্টিভাইরাস আপনি ব্যবহার করতেই পারেন, কিন্তু বেস্ট অ্যান্টিভাইরাসের লেভেলটাই আলাদা।

আর এক্ষেত্রে বেস্ট বিটডিফেন্ডার। স্যান্ডার্ড প্রোটেকশন তো এরা দেয়ই, এছাড়াও পাসওয়ার্ড ম্যানেজার, র‌্যানসামওয়্যার প্রোটেকশন, ফাইল স্রেডার ও প্যারেন্টাল কন্ট্রোল জনিত সবরকম ভাবে এই অ্যান্টিভাইরাস আপনার কম্পিউটার বা ল্যাপটপকে নিরাপদ রাখে।

ওই সাদামাটা স্ক্যান ভুলে যান। বিটডিফেন্ডার আপনাকে রিয়েল টাইম প্রোটেকশন দেয়। উইন্ডোজ ১০-এর জন্য এটাকেই বেস্ট বলা হচ্ছে।

ডিজাইন আর ফিচার্স:
বিটডিফেন্ডার-এ একটা বেশ দৃষ্টিনন্দন ব্যাপার রয়েছে। উইন্ডোজ ১০-এর সঙ্গে মিলেমিশে যায় এমনভাবে যে মনে হয় উইন্ডোজেরই কোনো অ্যাপ এটি।

মেনুতে সব কিছু ঠিকঠাক বোঝানো রয়েছে, ঠিকঠাক জায়গামতো রয়েছে, অসুবিধা হওয়ার কোনো ব্যাপার নেই। বাঁ দিকে প্যানেলে রয়েছে মেন নেভিগেশন।

গড়পড়তা প্রোটেকশন থেকেও বেশি কিছু:
অ্যান্টিভাইরাস নিঃসন্দেহে ভাইরাস আর ম্যালওয়্যার থেকে আপনার গেজেটকে নিরাপদ রাখবে। কিন্তু কে কতটা ঠিকঠাক ভাবে সেই কাজ করছে, সেটাই দেখার। ফিশিং প্রটেকশনও-ও মিলছে বিটডিফেন্ডারে।

তাছাড়া এই অ্যান্টিভাইরাসের সবথেকে বড় ব্যাপার এর ওয়েব প্রোটেকশন দুর্দান্ত। সার্চ রেজাল্টের মধ্যেই এটি দেখিয়ে দেবে, কোন কোন লিঙ্ক বিপজ্জনক। ম্যালওয়্যার স্ক্যানিং অনেক দ্রুত।

বিটডিফেন্ডারের আরেকটি ইউনিক ফিচার রয়েছে। তা হল রেসকিউ মোডে আপনার কম্পিউটারকে এটি রিবুট করবে, একদম বিকল্প নতুন অপারেটিং সিস্টেমে।

তাই সবথেকে বেয়াড়া ম্যালওয়্যার অ্যাটাকেও আপনি নিরাপদ। সমস্যা হলে আগেভাগেই এটি সতর্ক করবে আপনাকে।

অতিরিক্ত ফিচার্স:
-নিরাপদ নয় এমন হটস্পট ব্যবহার করলে সতর্ক করবে।
-আপনার নেটওয়ার্কে কোনো ডিভাইস কানেক্ট হলে, সেটির সিকিওরিটি চেক করা যাবে।
-ডকুমেন্টসে ভুলভাল অ্যাকসেস হলে র‌্যানসামওয়্যার প্রোটেকশন দেবে।
-সহজ পাসওয়ার্ড ম্যানেজার রয়েছে।
-সেফ পে বলে একটি ফিচার্স রয়েছে, আপনার দরকারি ব্যক্তিগত বিষয়গুলি এর মাধ্যমে দেওয়া নেওয়া করতে পারেন।
-ফাইল স্রেডার ফিচার্সের মাধ্যমে ব্যক্তিগত গোপনীয় বিষয়গুলি পাকাপাকি ভাবে ডিলিট করতে পারবেন।

দাম:
বিট ডিফেন্ডার টোটাল সিকিউরিটি ২০১৮-র দাম পড়বে এক বছরের জন্য ৪.৯৯ ডলার (প্রায় ৪ হাজার ১৫০ টাকা)। পাঁচটি ডিভাইসে ব্যবহার করা যাবে। কেনার আগে এর ফ্রি আর ট্রায়াল ভার্সন ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএজে