ঈশ্বরগঞ্জে সবজির বাম্পার ফলন

ঢাকা, সোমবার   ২৭ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ১৩ ১৪২৬,   ২১ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

ঈশ্বরগঞ্জে সবজির বাম্পার ফলন

 প্রকাশিত: ২০:২০ ৯ নভেম্বর ২০১৮   আপডেট: ২০:২০ ৯ নভেম্বর ২০১৮

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ময়মনসিংহের বাজারে শীতকালিন সবজি উঠেছে। এরইমধ্যে ঈশ্বরগঞ্জের বিভিন্ন বাজারগুলো শীতকালীন সবজিতে ভরে উঠেছে। অধিকাংশের দাবি, অনুকূল আবহাওয়া ও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের চেষ্টায় এবার সবজির বাম্পার ফলন হয়েছে। স্থানীয় চাহিদা পূরণ করে সবজি পাঠানো যাবে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলেও।

স্থানীয়রা বলেন, উপজেলার উচাখিলা রাজীবপুর পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদের তীর ও কাঁচা মাটিয়া নদীর  তীরবর্তী জাটিয়া ইউপিতে অধিক পরিমাণে সবজি উৎপাদন হয়। এ এলাকার সবজি স্থানীয় জনগোষ্ঠির চাহিদা মিটিয়ে বিভিন্ন জেলার মানুষের চাহিদা মেটাতে ভূমিকা রাখছে। এছাড়া, এলাকার কৃষকরা সবজি চাষে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হচ্ছেন। 

স্থানীয় কৃষকরা বলেন, গত কয়েকদিন আগে হঠাৎ বৃষ্টি হলে সবজি চাষে ভাটা পড়ে। এখন আবহাওয়া ভাল হওয়ায় উৎপাদনের পরিমাণ বেড়েছে। স্থানীয় কৃষি অফিস সব সময় যোগাযোগ করে পরামর্শ দিচ্ছেন। সবজি উৎপাদন বাড়লেও তারা ন্যায্য দর পান না। বাজারের দর আমাদের বিক্রির দরের মধ্যে অনেক পার্থক্য। এ দাম বাড়ার পিছনে মধ্যস্বত্বভোগীরা দায়ী। 

স্থানীয় কাঁচামাল ব্যবসায়ী ছফির উদ্দিন বলেন, ফুলকপি, সিম, বেগুন, করলা, ঝিঙ্গা, ঢেরস,পটল, মুলা,বরবটি, লাউ, শসা, মুলার দাম কমলেও বাড়ছে টমেটো, গাজর ও আলুর দাম।

ব্যবসায়ী মোজাম্মেল হক বলেন, বাজারে এখনো সবজির দাম কমেনি। আমরা কম দামে সবজি পেলে কম দরে বিক্রি করব। কয়েকদিনের মধ্যে সবজি দাম কম হবে বলে আমরা আশাবাদী।

ক্রেতা রফিক উদ্দিন বলেন, বাজারে পর্যাপ্ত পরিমাণ সবজি রয়েছে। এর পরও সবজির দাম কমছে না। সবজির জোগান থাকার পরও দাম চড়া থাকায় আমি অসন্তুষ্ট। 

ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সাধন কুমার গুহ মজুমদার বলেন, উপজেলা কৃষি বিভাগ নিরাপদ সবজি উৎপাদনে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ/জেএইচ

Best Electronics