ইসরাইলের বন্ধুত্ত্বই কি সৌদির কাল?

ঢাকা, সোমবার   ১৯ এপ্রিল ২০২১,   বৈশাখ ৬ ১৪২৮,   ০৬ রমজান ১৪৪২

ইসরাইলের বন্ধুত্ত্বই কি সৌদির কাল?

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:৫৭ ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

বিশ্বে সবচেয়ে বেশি তেল রপ্তানিকারক দেশ সৌদি আরব। বর্তমানে দেশটিতে ২৬৮ বিলিয়ন বেরেল তেলের মজুদ রয়েছে। পৃথিবীর ১৮তম বৃহত্তম অর্থনৈতিক দেশ হওয়া সত্ত্বেও শতভাগ মুসলিম এই দেশটিতে রয়েছে নানাবিধ সমস্যা। যার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে রাজনীতি। ইয়েমেনের সঙ্গে সংঘাত, ইসরাইলের সঙ্গে বন্ধুত্ত এবং ইরানের সঙ্গে বিরোধপূর্ণ সম্পর্ক পেছনের দিকে ঠেলে দিচ্ছে সৌদি আরবকে।

তেল রপ্তানির বাইরে সৌদির আরেকটি উপার্জনের পথ হচ্ছে হজ্জ্ব। এখান থেকে প্রতি বছর প্রায় ১২ বিলিয়ন ডলার আয় করে থাকে দেশটি, যা টোটাল জিডিপির (মোট দেশজ উৎপাদন) ৭ শতাংশ। আর বাকি ৯০ শতাংশ আসে পেট্রোলিয়াম থেকে। অন্যান্য খাত থেকে বাকি ৩ শতাংশ উপার্জন করে। 

বলতে গেলে, হজ্জ্ব এবং পেট্রোলিয়ামের উপর সৌদি আরব নির্ভরশীল। বর্তমানে দেশটির জিডিপি ৭৬২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। পৃথিবীর ১৮তম বৃহত্তম অর্থনৈতিক দেশ সৌদি আরব।  

বর্তমানে সৌদি আরবের বাদশা সালমান বিন আব্দুল আজিজ আল সৌদ। ক্রাউন প্রিন্স হচ্ছেন মোহাম্মদ বিন সালমান বিন আব্দুল আজিজ বিন আল সৌদ। যাকে সংক্ষেপে এমবিএস ডাকা হয়। 

সারাবিশ্ব সৌদি আরবে জনশক্তি রপ্তানি করলেও দেশটি অল্প সংখ্যক দেশের সঙ্গে আর্থিক সম্পর্ক রেখেছে। যে সব দেশের সঙ্গে ব্যবসায়িক সম্পর্ক আছে-চীন, জাপান, ভারত, যুক্তরাষ্ট্র, সাউথ কোরিয়া এবং সিঙ্গাপুর।     

ডেইলি বাংলাদেশ/এমএইচ