.ঢাকা, শুক্রবার   ১৯ এপ্রিল ২০১৯,   বৈশাখ ৫ ১৪২৬,   ১৩ শা'বান ১৪৪০

১৮ বছর পর যৌতুকের টাকা ফেরত

 প্রকাশিত: ১৯:০৪ ৭ নভেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৯:০৪ ৭ নভেম্বর ২০১৮

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

টাঙ্গাইলের হাদিরা ইউনিয়নের হাবিবপুর গ্রামে ১৮ বছর আগের ভুল সংশোধনে শ্বশুরকে যৌতুকের টাকা ফিরিয়ে দেন বাদশা।

যৌতুকের শিকার হয়ে যখন নারীকে প্রাণ দিতে হচ্ছে ঠিক সেই সময় মো. নজরুল ইসলামের ছেলে আব্দুর রহিম বাদশা বিরল এক ঘটনার সূচনা করলেন।

২০০০ সালে একই উপজেলার নবগ্রামের মো. আব্দুল হালিমের মেয়ে লতা বেগমকে বিয়ে করেন তিনি। বিয়ে আগে জানতেন না তার বাবা ৪০ হাজার টাকা যৌতুক নিয়েছেন।

আব্দুর রহিমের ১৮তম বিবাহ বার্ষিকীতে সমাজের মানুষদের সচেতন করতে যৌতুকের টাকা ফেরত দেন। গৃহপালিত পশু ও উপহার দেন তার শশুর বাড়ির লোকজনদের।

রহিমের শ্বশুর জানান, জামাতার বুদ্ধিমত্তা দেখে খুব ভালো লাগছে। আমি চাই আর যেন কেউ যৌতুক নিয়ে বিয়ে না করে। এটা একটি সামাজিক ব্যাধি। এ থেকে বেরিয়ে আসতে হবে।

আব্দুর রহিম বাদশা জানান, যৌতুক একটি সামাজিক ব্যাধি। আমি যখন বিয়ে করি তখন বেকার ছিলাম তাই কিছু বলতে পারি নাই। আজ যৌতুকের টাকা ফিরিয়ে দিলাম। কারন যৌতুক নেওয়া ও দেওয়া দুটোই অপরাধ।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসকে