Alexa ইভিএম ব্যবহারের বিধান রেখে আরপিও সংশোধনের প্রস্তাব

ঢাকা, শনিবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯,   আশ্বিন ৬ ১৪২৬,   ২১ মুহররম ১৪৪১

Akash

ইভিএম ব্যবহারের বিধান রেখে আরপিও সংশোধনের প্রস্তাব

 প্রকাশিত: ১৭:৩৪ ৩০ আগস্ট ২০১৮   আপডেট: ১৯:৪০ ৩০ আগস্ট ২০১৮

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

আগামী জাতীয় নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের বিধান রেখে আরপিও সংশোধনের প্রস্তাব করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। 

বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৫টায় এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা।

সংবাদ সম্মেলনে সিইসি কে এম নুরুল হুদা বলেন, সংশোধন মানেই যে এই জাতীয় সংসদ নির্বাচনেই ইভিএম ব্যবহার করা হবে, তা নয়। প্রয়োজনে ব্যবহার করার জন্যই এ আরপিও সংশোধন করার প্রস্তাব করা হয়েছে। আমরা স্থানীয় নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার করে ভালো ফল পেয়েছি বলেই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এ টি এম শামসুল হুদা নেতৃত্বাধীন ইসির হাত ধরে ২০১০ সালে বাংলাদেশে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন বা ইভিএমের যাত্রা শুরু হয়। তখন বুয়েটের সহায়তায় তৈরি ইভিএম স্থানীয় নির্বাচনে ব্যবহার করা হয়।

তখন বলা হয়েছিল, ধীরে ধীরে ইভিএমের ব্যবহার বাড়িয়ে কাগজে ব্যালটের ব্যবহার কমিয়ে আনা হবে। কারণ এতে অর্থ সাশ্রয়ের পাশাপাশি ভোটগ্রহণে সময় লাগে কম, ফলও পাওয়া যায় সঙ্গে সঙ্গে।

এরপর ইভিএম নিয়ে আর বেশি দূর এগোয়নি ইসি। ইভিএমের ব্যাটারি ব্যবহার নিয়ে বুয়েটের সঙ্গে দেখা দিয়েছিল দ্বন্দ্ব। তখন থেকেই ইভিএমগুলো অকেজো হয়ে পড়ে। এমন পরিস্থিতিতে ২০১৩ সালের পর ইভিএম ব্যবহার থেমে যায়।

পরে কে এম নূরুল হুদা নেতৃত্বাধীন বর্তমান নির্বাচন কমিশন দায়িত্ব নেয়ার পরই ইভিএম নিয়ে নতুন উদ্যোগ শুরু হয়। তৈরি করা হয় ‘ডিজিটাইজড ইভিএম’। বাংলাদেশ মেশিন টুলস ফ্যাক্টরি (বিএমটিএফ) এতে সহায়তা করে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ক্ষণগণনা ৩১ অক্টোবর থেকে শুরু হবে। ইসির পরিকল্পনা অনুযায়ী নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে তফসিল ও ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর/এসআই/আরআই