ইবি শিক্ষকের প্রেমালাপ ফাঁস হওয়ায় তদন্ত কমিটি গঠন
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=191765 LIMIT 1

ঢাকা, রোববার   ০৯ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২৫ ১৪২৭,   ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

ইবি শিক্ষকের প্রেমালাপ ফাঁস হওয়ায় তদন্ত কমিটি গঠন

ইবি প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:৩৮ ৩ জুলাই ২০২০  

ছবি: ইন্টারনেট

ছবি: ইন্টারনেট

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমানকে শোকজ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশসন। আগামী সাত দিনের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বরাবর কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে। একইসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিসি’র পরিচালকের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার এস এম আব্দুল লতিফ স্বাক্ষরিত এক প্রেস-বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান ও এক নারী শিক্ষার্থীর মধ্যে কথােপকথনের একাধিক অডিও সামাজিক যােগাযােগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে তা কর্তৃপক্ষের দৃষ্টিগােচর হয়।

আদেশে বলা হয়, অধ্যাপক রহমান ও নারী শিক্ষার্থীর মধ্যে অডিওতে যেভাবে অশ্লীল ও আপত্তিকর কথাবার্তা হয়েছে তা শিক্ষক হিসেবে নৈতিক স্বলনের (Moral Turpitude) সামিল। যাতে শিক্ষক সমাজসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমুর্তি এবং শিক্ষক ও শিক্ষার্থীর মধ্যকার সম্পর্কের পবিত্রতা ক্ষুন্ন হয়েছে।

আদেশে আরো বলা হয়, এরুপ কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত থাকার অভিযােগে অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমানকে টিএসসি সি’র পরিচালকের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হলাে। এছাড়া ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে কেন চূড়ান্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না তা চিঠি পাওয়ার আগামী ০৭ দিনের মধ্যে রেজিস্ট্রার বরাবর কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে।

এদিকে এ ঘটনা তদন্তে তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এতে আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. হালিমা খাতুনকে আহবায়ক করা হয়েছে। কমিটির অন্যন্য দুজন সদস্য হলেন দেশরত্ন শেখ হাসিনা হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. শেলীনা নাসরিন ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম।

এব্যাপারে ইবি ভিসি প্রফেসর ড. রাশিদ আসকারী বলেন, সকল প্রকার অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে ইবি প্রশাসনের জিরো টলারেন্স। তদন্ত কমিটির রিপোর্টের উপর ভিত্তি করে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

গত ৩০ জুন বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান ও এক নারী শিক্ষার্থীর অশ্লীল প্রেমালাপের দুটি অডিও ক্লিপ ফাঁস হয়। এই অডিও ক্লিপের একটিতে ড. মিজানকে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক নারী শিক্ষার্থীকে একা বাসায় আসার প্রস্তাব দেওয়াসহ বিভিন্ন ধরণের অশ্লীল আলাপ করতে শোনা যায়।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরআর