ইপ্সিত পাপ ও পরবর্তী ধারাগুলি || মন্দিরা ঘোষ

.ঢাকা, বুধবার   ২৪ এপ্রিল ২০১৯,   বৈশাখ ১১ ১৪২৬,   ১৮ শা'বান ১৪৪০

ইপ্সিত পাপ ও পরবর্তী ধারাগুলি || মন্দিরা ঘোষ

 প্রকাশিত: ১৫:৫৬ ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৫:৫৬ ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

১.বাঁশি

সমস্ত অন্ধতা নিংড়ে 
বেজে উঠছে বাঁশি
স্পর্শের সুচারু আয়োজন
হঠাৎ বৃষ্টি বাদলে
কোথাও ছিঁড়ে গেল তার
অন্ধকারে একটি জলসাঘরের
সূচনা হল কোথাও


২.বিপথগামী

ধূলোর রঙে সজল সকাল
ভোরের অমলঅশ্রু এড়িয়ে
বিপথগামীতা হেঁটে যায়
নামার সিঁড়ি গুলিতে মনমরা
আলোর সাঁজবাতি
সহজলভ্য আখ্যানের পাতাগুলি
তোমার জন্য খুলে রাখা


৩.অনিচ্ছার বোঝাপড়া

নিবিড়তার ভেতর কোন
নিবিড় বোঝাপড়া
হেমন্তের সোনালি ছায়ায়
মুগ্ধতায় ঘেরা বিনোদন
নিবিষ্ট ইচ্ছের বর্ণমালায়
অনিচ্ছার সূতোটি দুলছে


৪. সম্মতি

মোড়কের ভেতর বাধ্যতার
কুয়াশাছাপ
বলিরেখার সূচকগুলি মুড়ে রাখা
সকাল আড়মোড়া ভাঙ্গে
সম্মতির পাতায়
নামতে নামতে জনপদ শরীরে
তোমার নির্মাণের আঙ্গুলগুলি
ডুবে যায়


৫.সমর্পণ

সবটুকুই সাজানো আয়নায়
প্রলোভনের আঁচ তোমার দৃঢ়তায়
বিন্যাসে মুগ্ধতার মোহর
আড়ালে দাঁড়িয়ে সময়ের বজ্রমুঠি
আহত হতে হতেও মেনে নিলে
প্রবিষ্টার সমর্পণ
বজ্রাহত  নিঃসাড় একাকী
নিরাভরণ
সেদিন ধর্ষিত হলে তুমি


৬. রৌদ্রছায়া

মোচড়ের টান সব ভিতরের
আভ্যন্তরিক রসায়নধর্ম
তুলে রাখছি সময়সারণীর চাতালে
দু দন্ডের ছায়াগুলি রৌদ্রতাড়িত
চোখ পেতে রাখি বুকের হৃদ্যতায়
ঢেউগুলি বার বার  বদলে দেয়
তীরের অভিমুখ


৭.দাবি

অধিকারবোধ অনেকখানি
কুড়িয়ে পাওয়া সম্পদের মত
নিরথর্ক সব দাবীর কঙ্কাল
নিয়ে নাড়াচাড়া
সহজপাঠের  ক্ষরণগুলি 
তোমায় স্পর্শ করেনি কখনো