Alexa ইডেন টেস্টে ধারাভাষ্যের প্রস্তাব মাশরাফীর প্রত্যাখ্যান

ঢাকা, সোমবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২০,   মাঘ ১৩ ১৪২৬,   ০১ জমাদিউস সানি ১৪৪১

Akash

ইডেন টেস্টে ধারাভাষ্যের প্রস্তাব মাশরাফীর প্রত্যাখ্যান

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:০৯ ১৪ নভেম্বর ২০১৯   আপডেট: ১৪:১০ ১৪ নভেম্বর ২০১৯

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

প্রথমবারেরমত দিবারাত্রির টেস্ট খেলতে যাচ্ছে বাংলাদেশ-ভারত।  কলকাতার ইডেন গার্ডেনে অনুষ্ঠিত হবে এ ঐতিহাসিক টেস্ট। এ টেস্টকে ঘিরে নানান রকম পরিকল্পনা করেছেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের নতুন সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী। তারই ধারাবাহিকতায় টেস্টে সিরিজের অফিসিয়াল ব্রডকাস্টার স্টার স্পোর্টস ধারাভাষ্য দেয়ার জন্য প্রস্তাব দিয়েছেন মহেন্দ্র সিং ধোনিকে।  দিবারাত্রির এই টেস্টে বাংলায় ধারাভাষ্য দেয়ার আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল মাশরাফী বিন মোর্ত্তজাকেও। তবে স্টার স্পোর্টসের সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছেন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক।

একদশক হয়ে গেছে টেস্ট খেলেন না মাশরাফী।  কিছুদিন আগে বাংলাদেশের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ১৮ বছর পূর্ণ করেছেন।  তিনি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ছেড়েছেন দুই বছর আগে। এখন শুধু ওয়ানডে। খেললেও গত বিশ্বকাপের পর চোটের কারণে আর ওয়ানডেও খেলা হয়নি। আগামী বছরের মে-জুনের আগে বাংলাদেশের আর ওয়ানডে খেলাও নেই। মাশরাফী এই ফাঁকা সময়টাই কাজে লাগাতে চেয়েছিল স্টার স্পোর্টস।

অবশ্য খেলা না থাকলেও নিজ জেলা নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য হিসেবেও মাশরাফীর ব্যস্ততা কম নয়।  সেই ব্যস্ততার কারণে ধারাভাষ্যের প্রস্তাব ফিরিয়েছেন কি না, তা অবশ্য স্পষ্ট করেননি মাশরাফী।

দেশের একটি জাতীয় দৈনিককে মাশরাফী বলেছেন, ‘আমাকে গোলাপি বলের টেস্টে ধারাভাষ্য দিতে বলা হয়েছিল। কিন্তু আমি আগ্রহী হইনি। ওদেরকে না বলে দিয়েছি।’ তবে খেলা দেখতে কলকাতায় যাচ্ছেন বলে তিনি নিশ্চিত করেছেন, ‘এই ম্যাচটি দেখার ইচ্ছা আছে।  আশা করি, খেলার সময় আমি কলকাতাতেই থাকব।’

ঐতিহাসিক এই টেস্ট রাঙিয়ে রাখতে নানা উদ্যোগ নিয়েছে ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অব বেঙ্গল (সিএবি)। ইডেনের ঐতিহ্যবাহী ঘণ্টা বাজিয়ে টেস্টের উদ্বোধন করবেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভারতীয় বোর্ড সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন শিল্পী রুনা লায়লাকেও আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। ম্যাচ শুরুর আগে গান গাইবেন এই কিংবদন্তি। ২০০০ সালে ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের অভিষেক টেস্টের দলে থাকা প্রত্যেক ক্রিকেটারকেও আমন্ত্রণ জানিয়েছে সিএবি। 
 

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস