ইংল্যান্ডের সাদামাটা উদ্বোধন, সেরা বাংলাদেশই!

ঢাকা, বুধবার   ২৬ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ১২ ১৪২৬,   ২১ শাওয়াল ১৪৪০

ইংল্যান্ডের সাদামাটা উদ্বোধন, সেরা বাংলাদেশই!

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১০:৩০ ৩১ মে ২০১৯   আপডেট: ১১:১৪ ৩১ মে ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

যে কোনো বড় আসরে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান মানেই জমকালো সব আয়োজন, বিশ্বে নতুন চল, নতুন ফ্যাশন। এমনই আশায় থাকেন সব ভক্ত-সমর্থকরা। তবে এবার আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান খানিকটা হতাশই করল ক্রিকেট সমর্থকদের। 

লন্ডনের ‘দ্য মল’ নামক খ্যাতিমান ভেনুতে এবারের ওয়ানডে বিশ্বকাপের আয়োজনটা ছিল খুবই সাদামাটা। বাকিংহাম প্যালেসকে পেছনে রেখে হয়েছে আনুষ্ঠানিকতা। আগেই জানানো হয়েছিল খেলাধুলার মাধ্যমে গান-বাজনার পরিবেশনা দিয়েই এই এক ঘণ্টা বুঁদ করে রাখবে গোটা বিশ্বকে। তবে তার ছিঁটেফোটাও চোখে পড়েনি। সাদামাটা এ অনুষ্ঠানে মোটেও মন ভরেনি ক্রিকেটামোদীদের। 

ক্রিকেট ওয়ানডে বিশ্বকাপ ১২তম আসরে ইংল্যান্ডের সাদামাটা উদ্বোধনী অনুষ্ঠান

উদ্বোধনী এ অনুষ্ঠান নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলছে সমালোচনার ঝড়! মাত্র এক ঘণ্টা ব্যাপ্তির উদ্বোধনী দেখে হতাশা ক্রিকেট আমোদীদের মুখে এখন বাংলাদেশের জয় গান। তাদের কণ্ঠে ঘুরেফিরে আসছে ২০১১ বিশ্বকাপের জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের কথা, যার আয়োজক ছিল বাংলাদেশ।

২০১১ সালের ১৭ ফেব্রয়ারি। ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বর্ণিল উদ্বোধনীর মাধ্যমে পর্দা ওঠে দশম ক্রিকেট বিশ্বকাপের। ভারত, বাংলাদেশ ও শ্রীলংকার যৌথ আয়োজনে এই বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের দায়িত্ব পায় বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ আয়োজিত ২০১১ সালের ক্রিকেট ওয়ানডে বিশ্বকাপের জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেই অনুষ্ঠানের উদ্বোধন ঘোষণা করার পরপরই চোখ ধাঁধানো আতসবাজি, আর দেশ-বিদেশের শিল্পী কলা কুশলীদের অংশগ্রহণে শুরু হয় মূল অনুষ্ঠান।

বাংলাদেশ আয়োজিত ২০১১ সালের ক্রিকেট ওয়ানডে বিশ্বকাপের জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান

মাঠে বসে হাজার হাজার দর্শক সেদিন সেই অনুষ্ঠান উপভোগ করেন। এর পাশাপাশি স্যাটেলাইটের কল্যাণে বিশ্বের ১৮০টির মতো দেশে এই অনুষ্ঠান সরাসরি সম্প্রচার করা হয়; যা ছিল খুবই জ্বাকজমকপূর্ণ।

কিন্তু ইংল্যান্ডের ক্ষেত্রে আশা দিয়ে ঘটালো ঠিক তার উল্টো। আর তাই, এ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় সমালোচনার ঝড় চলছেই।

ফেসবুকে ‘ক্রিকেট দুনিয়া গ্রুপ’ একটি পেজে লিখেছে, ‘ইংল্যান্ডের আয়োজন যেমন সাদামাটা! কিন্তু উল্টো ছিল আমাদের আয়োজন। আইসিসির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মাঝে আমাদেরটাই বেস্ট ছিল।;

কানাডার টরেন্টো থেকে এমি নামের ক্রিকেটামোদী টুইটারে লিখেছেন, ‘২০১১ সালের আইসিসি বিশ্বকাপের উদ্বোধনী উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তাকিয়ে দেখুন।’

বাংলাদেশ আয়োজিত ২০১১ সালের ক্রিকেট ওয়ানডে বিশ্বকাপের জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান

উতকারশ ভার্মা মানের একটন লিখেছেন, ‘কী বাজে! বিশ্বাস করতে পারছি না এটা গ্রহের দ্বিতীয় জনপ্রিয় খেলার বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। অথচ তারা বলেছিল যে, এটা হবে বিশ্বকাপের সবচেয়ে বড় উদ্বোধনী অনুষ্ঠান!’

বাংলাদেশ আয়োজিত ২০১১ সালের ক্রিকেট ওয়ানডে বিশ্বকাপের জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান

দিল্লি থেকে একজন লিখেছেন, ‘আমার জীবনে দেখা বিশ্বকাপের সবচেয়ে বাজে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।আইসিসি বিশ্বকাপের তুলনায় অনেক সাধারণ মানের ফুটবল বা ক্রিকেট লিগের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের জন্য এর চেয়ে ভালো প্রস্তুতি থাকে।...সবশেষ ক্রিকেটে সবচেয়ে গ্র্যান্ড উদ্বোধনী দেখেছি ২০১১ সালে বাংলাদেশে।’

ডেইলি বাংলাদেশ/এসআই