গ্রেফতারের পর আসামির মুমূর্ষু বাবাকে রক্ত দিল পুলিশ

ঢাকা, সোমবার   ০৬ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২৩ ১৪২৬,   ১২ শা'বান ১৪৪১

Akash

গ্রেফতারের পর আসামির মুমূর্ষু বাবাকে রক্ত দিল পুলিশ

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:০৫ ১৫ মার্চ ২০২০   আপডেট: ১৭:১২ ১৫ মার্চ ২০২০

আসামির বাবাকে রক্ত দিচ্ছেন পুলিশের এক কর্মকর্তা

আসামির বাবাকে রক্ত দিচ্ছেন পুলিশের এক কর্মকর্তা

মুমূর্ষু অবস্থায় হাসপাতালের শয্যায় শায়িত বাবা। তার জন্য জরুরি ভিত্তিতে রক্তের প্রয়োজন। বাবার রক্তের গ্রুপের সঙ্গে হত্যা মামলার আসামি ছেলের এমদাদের রক্তের মিল রয়েছে।বাবার প্রতি ভালোবাসা ও দায়বদ্ধতা থেকে হাসপাতালে গোপনে ছুটে আসেন চার মাস আত্মগোপনে থাকা আসামি এমদাদ। কিন্তু আইনের দায়বদ্ধতা থেকে এমদাদকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারের পর বাবাকে রক্ত দিতে পারেনি এমদাদ। তবে তার মুমূর্ষু বাবাকে রক্ত দিলেন পুলিশের এক কর্মকর্তা।

পুলিশ জানায়, আসামি এমদাদের বাবা চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। রক্তের প্রয়োজন থাকায় পুলিশের চোখ ফাঁকি দিতে হাসপাতালে গোপনে আসেন এমদাদ। কিন্তু পুলিশের চোখ ফাঁকি দিতে পারেননি তিনি। পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে। একদিকে বাবার প্রতি ভালোবাসা ও রক্ত দেয়ার বিষয়, অন্যদিকে আইনের বাধ্যবাধকতা পুলিশকে ভাবায়। তাই আসামিকে আদালতে সোপর্দ করার পাশাপাশি  আসামির মুমূর্ষু বাবাকে ‘ও’ পজেটিভ রক্ত দান করেন এক পুলিশ কর্মকর্তা। এতে আইন প্রয়োগের পাশাপাশি মানবতাবোধটি জাগ্রত রাখল পুলিশ।

চট্টগ্রামের আকবরশাহ থানার ওসি মো. মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী জানান, ২০১৯ সালের ১৯ অক্টোবর রাতে গান বাজনাকে কেন্দ্র করে ছুরিকাঘাতে খুন হন জসিম নামের এক যুবক। সেই ঘটনায় দায়ের করা মামলায় তিন নম্বর আসামি এমদাদ। মামলার ছয় আসামির মধ্যে সাকিব, জীবন, নুরুদ্দিন, জাহিদ, শহীদকে ঘটনার পরই গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। তবে এমদাদ চার মাস ধরে আত্মগোপনে ছিলেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ