Alexa আশুগঞ্জে গ্রামবাসীর সংঘর্ষে বাড়িঘর ভাঙচুর-লুটপাট, আহত ৩০

ঢাকা, বুধবার   ১৭ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ২ ১৪২৬,   ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪০

আশুগঞ্জে গ্রামবাসীর সংঘর্ষে বাড়িঘর ভাঙচুর-লুটপাট, আহত ৩০

 প্রকাশিত: ২১:৩৮ ২২ অক্টোবর ২০১৭   আপডেট: ২১:৪০ ২২ অক্টোবর ২০১৭

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি: আশুগঞ্জে পূর্ব বিরোধের জের ধরে দু’দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে দুপক্ষের অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছে।

আজ রোববার দুপুরে উপজেলার দূর্গাপুর এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় দাঙ্গাবাজরা অন্তত ১৫/২০ টি বাড়ি ও দোকানে পাটে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও লুটপাট করে। ৫টি বাড়িসহ খড়ের গাদায় আগুন ধরিয়ে দেয়।

সংঘর্ষে আহতদের স্থানীয় বিভিন্ন ক্লিনিকসহ জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, শুক্রবার বিকালে পূর্ব বিরোধের জের ধরে দূর্গাপুর এলাকার জারুর বাড়ির সামসুল হকের ছেলে মহিউদ্দিনের সাথে মোল্লা বাড়ির রফিকুল ইসলামের ছেলে বোরহানের সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হাতাহাতি হয়। এর জের ধরে আজ রবিবার দূর্গাপুর গ্রামের লোকজন দু-ভাগে বিভক্ত হয়ে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এসময় এলাকার অন্তত ৬/৭ টি স্পটে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষ চলাকালে জারুর বাড়ির পর্ক্ষের লোকজন মোল্লা বাড়ির পক্ষের লোকজনের অন্তত বেশ কয়েকটি দোকানপাট, বাড়ি-ঘরে, ভাঙচুর-লুটপাট করে এবং ৫টি ঘরে আগুন ধরিয়ে দেয়। এসময় উভয় পক্ষের অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছে। খবর পেয়ে জেলা থেকে অতিরিক্ত পুলিশ ও আশুগঞ্জ থানা পুলিশ ব্যাপক লাঠিচার্জ ও টিয়ার গ্যাস ছুড়ে সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার মনিরুজ্জামান ফকির জানান, বর্তমানে সংঘর্ষে নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। সংঘর্ষ ঠেকাতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরকে/এসিডি/এসআই