Alexa আরও ২ ফিলিস্তিন যুবককে হত্যা

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯,   অগ্রহায়ণ ২১ ১৪২৬,   ০৮ রবিউস সানি ১৪৪১

আরও ২ ফিলিস্তিন যুবককে হত্যা

 প্রকাশিত: ১০:১৩ ২৩ জুলাই ২০১৭  

আল-আকসা মসজিদকে কেন্দ্র করে ক্রমেই উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে ফিলিস্তিন। পশ্চিমতীরে পৃথক সংঘর্ষের ঘটনায় ইসরাইলি নিরাপত্তা বাহিনী আরো দুই ফিলিস্তিনি যুবককে হত্যা করেছে। শনিবার ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এ তথ্য জানিয়েছে। খবর আল জাজিরার। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, জেরুজালেমের পূর্বাঞ্চলীয় শহর আল আইজারিয়াতে ইসরাইলি সেনাদের গুলিতে শনিবার আহত অদি নওয়াদার (১৭) মৃত্যু হয়েছে। আর পশ্চিমতীরের আবু দিস গ্রামে নিহত হন ১৮ বছর বয়সী এক যুবক। ইসরাইলি নিরাপরক্ষীদের ওপর পেট্রলবোমা নিক্ষেপের সময় তার মৃত্যু হয়। এদিকে ইসরাইল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারীদের দমনে তারা বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। ফিলিস্তিনিদের ছোড়া পাথর ও বোতলের আক্রমণ থেকে রক্ষার জন্য দাঙ্গা দমনের বিভিন্ন সরঞ্জাম প্রয়োগ করা হচ্ছে। টেলিভিশনে প্রচারিত ফুটেজের বরাত দিয়ে আল জাজিরা জানায়, বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ স্টান গ্রেনেড ছাড়াও জলকামান ব্যবহার করছে। একই সঙ্গে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে শনিবার পশ্চিম তীরে ইসরাইলি বাহিনীর অতিরিক্ত সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। মুসলিমদের অন্যতম পবিত্র স্থান আল আকসা মসজিদ বন্ধ করে দেয়া এবং তিন ফিলিস্তিনিকে হত্যার পর শুক্রবার ইসরাইলের সঙ্গে সব ধরনের যোগাযোগ স্থগিতের ঘোষণা দেন ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস। সংক্ষিপ্ত টেলিভিশন ভাষণে তিনি বলেন, ‘গত সপ্তাহে আল-আকসা ফটকে স্থাপিত মেটাল ডিটেক্টর সরিয়ে না নিলে সব ধরনের দাপ্তরিক যোগাযোগ স্থগিত থাকবে।’ একই দিন ফিলিস্তিনের পশ্চিমতীরে সন্দেহভাজন ছুরি হামলায় ৩ ইসরাইলি সেটলারের মৃত্যু হয়। আহত হয় আরেক সেটলার। পরে হামলাকারী ওই ফিলিস্তিনিকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এর আগে ইসরাইলি বাহিনী গুলি করে তিন ফিলিস্তিনিকে হত্যা করে। এদিকে আল-আকসা মসজিদ ঘিরে সংঘর্ষের ঘটনায় শনিবার জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের জরুরি বৈঠক আহ্বান করেছে সুইডেন, ফ্রান্স ও মিশর। সুইডেনের রাজনৈতিক সমন্বয়ক কার্ল স্কাউ বলেছেন, জরুরি ভিত্তিতে বৈঠক করে এই সংঘর্ষ থামানোর পথ বের করা উচিত। ডেইলি বাংলাদেশ/আরকে