আম্ফানে তলিয়ে গেছে ১৮ মিঠা পানির পুকুর

ঢাকা, সোমবার   ০১ জুন ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ১৮ ১৪২৭,   ০৮ শাওয়াল ১৪৪১

Beximco LPG Gas

আম্ফানে তলিয়ে গেছে ১৮ মিঠা পানির পুকুর

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:৪৪ ২৩ মে ২০২০   আপডেট: ১৬:৪৫ ২৩ মে ২০২০

আম্পানের আঘাতে লন্ডভন্ড দেশের দক্ষিণাঞ্চলের জেলা সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলা

আম্পানের আঘাতে লন্ডভন্ড দেশের দক্ষিণাঞ্চলের জেলা সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলা

সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার সুপেয় পানি ও স্যানিটেশন ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। লবণাক্ত পানি লোকালয়ে প্রবেশ করায় নষ্ট হয়েছে খাবার পানির উৎস। ফলে দূর দূরান্ত থেকে কিনে আনতে হচ্ছে সুপেয় পানি। একই অবস্থা এলাকার স্যানিটেশন ব্যবস্থারও।

ঘূর্ণিঝড় আম্পানের আঘাতে লন্ডভন্ড দেশের দক্ষিণাঞ্চলের জেলা সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলা। ধীরে ধীরে যেন আঘাতের চিহ্ন ফুটে উঠছে সর্বত্র। বড় বিপর্যয়ের নাম সুপেয় পানির তীব্র সংকট। পুকুর বা জলাশয় এবং বৃষ্টির পানি সংরক্ষণ করে ব্যবহার করতে হয় এলাকার মানুষকে। তার ওপর ঘূর্ণিঝড়ে লবণ পানি প্রবেশ করায় সুপেয় পানির উৎসগুলো নষ্ট হয়ে গেছে। শ্যামনগরে ১৮টি মিষ্টি পানির পুকুর এখন পানির নিচে। দুর্গত এলাকার মানুষদের দূর থেকে পানি কিনে আনতে হচ্ছে।

অন্যদিকে নদীর পানি মিলে মিশে একাকার হয়ে যাওয়ায় ভেঙে পড়েছে স্যানিটেশন ব্যবস্থা। এতে চরম স্বাস্থ্য ঝুঁকির মধ্যে উপজেলার বিশাল এক জনগোষ্ঠী।

জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী অধিদফতরের নির্বাহী প্রকৌশলী আরশাদ আলী জানান, আপদকালীন সময়ের জন্য ক্ষতিগ্রস্ত জনসাধারণকে ভ্রাম্যমাণ পরিবহনের মাধ্যমে সুপেয় পানি সরবরাহ করা হচ্ছে।

বিশেষজ্ঞরা সমন্বিত উদ্যোগের মাধ্যমে উপকূলীয় এলাকায় সুপেয় পানির জন্য পাড় উঁচু করে পুকুর ও দীঘি খনন করা এবং স্বাস্থ্য সম্মত উঁচু ল্যাট্রিন স্থাপনের ওপর গুরুত্ব দেন।

অ্যাওসেড প্রধান নির্বাহী শামীম আরেফিন বলেন, খাস জমিতে বড় বড় দীঘি ও পুকুর কাটতে হবে। তার পাড় উঁচু করতে হবে।

জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতর সূত্রে জানা যায়, জেলায় গভীর নলকূপ ও পুকুর সম্পূর্ণ ও আংশিক ২ হাজার ৯৪টি এবং ল্যাট্রিন ৫ হাজার একশটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে