ছবিতে আম্ফানে বিধ্বস্ত খুলনার উপকূল

ঢাকা, বুধবার   ২৭ মে ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ১৩ ১৪২৭,   ০৩ শাওয়াল ১৪৪১

Beximco LPG Gas

ছবিতে আম্ফানে বিধ্বস্ত খুলনার উপকূল

খুলনা প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:২৫ ২১ মে ২০২০   আপডেট: ১৮:২৩ ২১ মে ২০২০

খুলনা জেলার কয়রায় ঘরের উপর গাছ পড়ে পড়েছে। এতে ঘরে থাকা লোকজনের ক্ষয়-ক্ষতি না হলেও ঘরের একপাশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

খুলনা জেলার কয়রায় ঘরের উপর গাছ পড়ে পড়েছে। এতে ঘরে থাকা লোকজনের ক্ষয়-ক্ষতি না হলেও ঘরের একপাশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

সুপার সাইক্লোন আম্ফানে তাণ্ডবে তছনছ হয়ে গেছে খুলনার উপকূলীয় অঞ্চল। ভারী বর্ষণ ও জোয়ারের পানিতে বাঁধ ভেঙে তলিয়ে গেছে বিভিন্ন এলাকার মাছের ঘের ও ফসলি জমি। এছাড়া হাজার হাজার গাছ উপড়ে পড়েছে।

রূপসায় ঘর ভেঙে পড়ার পর ঘরের মালিক স্বজনদের ফোন করে দুঃসংবাদটি দিচ্ছেন।

দৌলতপুরে একটি কফি হাউজ ভেঙে চুরমার হয়ে গেছে। এতে নিঃস্ব হয়ে পড়েছেন কফি হাউজ মালিক। তিনি ঝড় পরবর্তী সকালে কফি হাউজটি মেরামত করার চেষ্টা করছেন।

কয়রায় খড়ের ঘর বিধ্বস্ত হয়েছে এক অসহায় নারীর। কীভাবে ক্ষতি পুষিয়ে উঠবেন মাথায় হাত দিয়ে ভাবছেন তিনি।

ভেঙে পড়েছে পড়েছে জামরুল গাছ।

ভেঙে গেছে মধুমাসের বাহারি মধু ফল আম গাছ।

বাঁধ ভেঙে পানিতে তলিয়ে গেছে লোকালয়। পানি ঢুকে পড়ে অনেকের বসতবাড়িসহ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে। দাকোপের একটি মন্দিরে পানি ঢুকে পড়ায় ছোট বাচ্চা নিয়ে এক পুরোহিত পানি অপসারণের চেষ্টা করছেন।

বিধ্বস্ত হয়েছে অনেক টিনের ঘর। দাকোপের সদর ইউপির একটি টিনের ঘর উড়িয়ে মাছের ঘেরের মধ্যে ফেলে ঝড়ো বাতাস।

কয়রার মহারাজপুর  ইউপির দশহালিয়া  গ্রামের ৬টি স্থান দিয়ে পানি ঢুকে পড়েছে লোকালয়ে।

ডুমুরিয়ায় সড়কে গাছ উপড়ে পড়ে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। সচেতন সমাজ কল্যাণ সংস্থা সদস্যরা রাস্তায় পড়ে থাকা গাছপালা সরিয়ে রাস্তাটি চলাচলের উপযোগী করছেন।

কয়রার নড়বড়ে বেড়িবাঁধে স্থানীয়রা কচুরিপনা দিয়ে জোয়ারের পানি ঠেকানোর চেষ্টা করছেন।

জেলা রাজস্ব ভবনের সামনে সিরিশ গাছ উপড়ে পড়েছে ঝড়ে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ